আন্তর্জাতিকনতুন খবর

বালোচিস্তানে চার বছরের শিশু হত্যার মামলায় পাক সেনার বিরুদ্ধে ক্ষেপল জনতা, ভাঙচুর চলল সেনার পোস্টে

ওয়েবডেস্কঃ পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের (PoK) বালুচিস্তানে (Balochistan) পাকিস্তানি (Pakistan) সেনার বিরুদ্ধে হিংসক প্রদর্শনের পর পাকিস্তানের সিকিউরিটি ফোর্স পিছু হটতে বাধ্য হয়। উল্লেখ্য, বালুচিস্তানের ব্রাবচায় হিংসক প্রদর্শন চলছিল, এরপর পাকিস্তানি সেনা সীমান্ত থেকে চেক পোস্ট সরাতে বাধ্য হয়।

বালুচিস্তান পোস্ট অনুযায়ী, হাজার হাজার সংখ্যায় প্রদর্শনকারীরা পাকিস্তানি সেনার উপর পাথর দিয়ে হামলা চালায়। এরপর পাক সেনা পিছু হটার সিদ্ধান্ত নেয়। প্রদর্শন এতটাই হিংসাত্মক হয়ে যায় যে, শুধু পাকিস্তানি সেনার উপর পাথর ছুঁড়েই শান্ত থাকেনা প্রদর্শনকারীরা। তাঁরা সেনার জন্য বানানো বিল্ডিংয়ে ভাঙচুর চালায়।

জানিয়ে দিই, পাকিস্তানের বালুচিস্তানের তরবত শহরে গতমাসে অপরাধীরা পাকিস্তানি সেনাবাহিনীর আড়ালে চার বছরের এক বাচ্চা আর তাঁর মাকে গুলি করে হত্যা করে। এই ঘটনার বিরুদ্ধে বালুচিস্তানে মানুষের মধ্যে ক্ষোভ সৃষ্টি হয়। এরপর তাঁরা পাক সেনার বিরুদ্ধে প্রদর্শন শুরু করে।

বালুচিস্তানের জনতা সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই বাচ্চার সমর্থনে #JusticeForBramsh হ্যাশট্যাগ দিয়ে অনলাইনে ক্যাম্পেন চালায়। বালুচ রিপাবলিকান পার্টি (BRP) গত মাসে এই ঘটনার জন্য পাকিস্তানি সেনার তীব্র সমালোচনা করে আর এই ঘটনাকে পাকিস্তানি সেনার তরফ থেকে বালুচিস্তানে নরসংহার জারি রাখার গতিবিধি বলে আখ্যা দেয়। তাঁরা জানায় এরকম নরসংহার পাক সেনা বহু বছর ধরে চালিয়ে আসছে।

জানিয়ে দিই, বালুচিস্তান প্রাকৃতিক খনিজের বড়সড় ভাণ্ডার। কিন্তু সেখানের বাসিন্দাদের কাছে প্রাথমিক সুবিধা পর্যন্ত নেই। সেখা হাসপাতাল নেই, কিছু মেডিকেল সুবিধা থাকলেও প্রয়োজনীয় উপকরণ নেই। শিক্ষা, রাস্তা, জল, চাষাবাসের দিক থেকে বালুচিস্তান চিরকালই অবহেলিত।

সেখানকার বাসিন্দা এই সমস্যা নিয়ে মুখর হলে তাদের মুখ বন্ধ করে দেওয়া হয়। অপহরণ করে নেওয়া এবং খুন করার ঘটনা সেখানে জলভাত। আর সবই চলে পাক সেনার নির্দেশে। সেখানে অনেক বড়বড় নেতা এবং সামাজিক কর্মীদের নজরবন্দী করে রাখা হয়। উন্নয়ন না করতে পারলেও, বালুচিস্তান দমনের জন্য উঠেপড়ে লেগে আছে।

বালুচিস্তানে এরকম অপরাধ আজকের নতুন ঘটনা না। সেখানে কয়েকদশক ধরেই এরকম অত্যাচার চলে আসছে। আর এই কারণে সেখানের অনেকেই ভারতে চলে আসতে চায় অথবা গোটা বালুচিস্তানকেই ভারতে অন্তর্ভুক্ত করতে চায়।

Related Articles

Back to top button