নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

রাজ্যে এখন থেকেই মোতায়েন হবে কেন্দ্রীয় বাহিনী? জল্পনা বাড়িয়ে মন্তব্য কৈলাস বিজয়বর্গীয়র

কলকাতাঃ রাজ্যে বেড়ে চলা হিং’সা’র কারণে এখন থেকেই কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করার দাবি জানালেন বিজেপির মহাসচিব তথা কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয় (Kailash Vijayvargiya)। এদিন শান্তিনিকেতন থেকে বিজয়বর্গীয় বলেন, ‘এখন থেকে রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েন করার জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে আবেদন করব।” তিনি বলেন, ‘রাজ্যে আ’ত’ঙ্কে’র মহল সৃষ্টি করতে চাইছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। ওনার পায়ের তোলা থেকে মাটি সরে গিয়েছে। উনি ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার ভয়ে রাজ্যে স’ন্ত্রা’স ছড়াচ্ছেন। মানুষ যাতে আ’ত’ঙ্ক ছাড়াই সুষ্ঠ ভাবে ভোট দিতে পারে সে জন্য নির্বাচন কমিশনের কাছে এখনো রাজ্যে বাহিনী মোতায়েন করার আবেদন করব।”

আরেকদিকে, বিজেপি নেতার অভিযোগের পর পাল্টা অভিযোগ করে তৃণমূল (All India Trinamool Congress)। তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ কৈলাস বিজয়বর্গীয়কে কটাক্ষ করে বলেন, ‘ঘুরে ঘুরে প্রলাপ বকছেন বিজেপির নেতারা। গোটা বাংলার মানুষ এখন দুয়ারে সরকার আর স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের সুবিধা নিচ্ছে। বিজেপি চাইছে না, এসব প্রকল্প মানুষের কাছে পৌঁছাক। এই কারণে তাঁরা ঘুরে ঘুরে অ’শা’ন্তি সৃষ্টি করতে চাইছে। ওঁরা গোটা ভারতের নেতা এনে এখানে বি’শৃ’ঙ্খ’লা’র সৃষ্টি করতে চাইছে।”

উনি বলেন, ‘বিজেপির নেতারা চায়না যে বাংলার উন্নতি হোক। আর বাংলার উন্নতি থেকে মানুষের নজর ঘোরাতে চাইছে।” তিনি বলেন, আমফান আর করোনার কারণে ডাকা লকডাউনে ত্রান শিবিরে এদের টিকিটিও খুঁজে পাওয়া যায়নি। আর এখন বাংলায় ক্ষমতার জন্য যা খুশি তাই করছে। তিনি ডায়মন্ড হারবারের ঘটনার জন্য উল্টে বিজেপিকেই দায়ি করেছেন।

আরেকদিকে, সিপিএম-এর তরফ থেকে বলা হয়েছে যে, রাজ্যে কেন্দ্রীয় বাহিনী মোতায়েনে তাদের কোনও আপত্তি নেই। কিন্তু বাহিনীকে সংবিধান মেনে নিরপেক্ষ ভাবে কাজ করতে হবে।

Related Articles

Back to top button