Press "Enter" to skip to content

বিকাশ আর আতঙ্কের দিনের অবসান ঘটানোর জন্য পুলিশ কর্মীদের উপর পুস্প বৃষ্টি কানপুরবাসীদের

শেয়ার করুন -

কানপুরঃ বিকাশ দুবের (Vikas Dubey) মৃত্যুর সাথে সাথে কানপুরের (Kanpur) বিকরু গ্রাম আর আশেপাশের গ্রামে আজ থেকে নতুন সকাল শুরু হল। বিকরু গ্রামের মানুষ এখনো সেরকম কিছু না করলেও, পাশের শিবলী গ্রামের মানুষ উৎসব পালন করা শুরু করে দিয়েছে। ওই গ্রামে বিকাশ দুবের প্রভাব অনেক বেশি ছিল, আর সেই কারণে এখন ওই গ্রামের মানুষ উৎসব পালন করছে। শিবলী গ্রামের বিকাশ দুবের অত্যাচার সহ্য করা লল্লন বাজপেয়ী নিজের বাড়ির সামনে আনন্দে আত্মহারা হয়ে পড়ে। লল্লন বাজপেয়ীর বাড়িতে বিকাশ ২০০২ এ হামলা চালিয়েছিল।

রিপোর্ট অনুযায়ী, ওই ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু হয়েছিল। বিকাশ দুবে আর লল্লন বাজপেয়ী প্রথমে বন্ধু ছিল। কিন্তু এই ঘটনার পর তাদের মধ্যে শত্রুতার দেওয়াল দাঁড়িয়ে পড়ে। আপনাদের জানিয়ে দিই, কানপুরের শবলী গ্রাম এক সময় বিকাশ দুবের অপরাধের সাম্রাজ্য ছিল। এই গ্রাম থেকে বিকাশ অপরাধের সাম্রাজ্যে পা রেখেছিল।

২০০২ সালে বিকাশ দুবে লল্লনের বাড়িতে হামলা করিয়েছিল। এই হামলায় লল্লন আহত হয়েছিল। বিকাশ দুবের এনকাউন্টারের পর লল্লন বাজপেয়ী বলে, আজ গোটা এলাকা খুব খুশি। এখানকার মানুষ নতুন করে স্বাধীনতা পেলো। বিকাশ যুগ আর আতঙ্কের যুগের অবসান ঘটল। এবার এই গ্রামে শান্তি কায়েম হবে। ললন বাজপেয়ী এলাকাবাসীর মধ্যে মিষ্টিও বিতরণ করে।

সংবাদসংস্থা PTI অনুযায়ী, বিকাশ দুবের এনকাউন্টারের পর পুলিশকর্মীদের কানপুর শহরে সন্মানিত করা হয়। কানপুরের বাসিন্দারা পুলিশদের ফুলের মালা পরিয়ে তাদের স্বাগত জানায়। লালা লাজপত রায় হাসপাতালের বাইরে সমাজসেবী সংগঠন এবং কর্মীরাও পুলিশকে সন্মানিত করে।