নতুন খবরভারতবর্ষ

২৫৭ কোটি টাকা, কেজি কেজি সোনা-রুপা! কানপুরের আতর ব্যবসায়ীর বাড়িতে এখনও চলছে তল্লাশি

কানপুরঃ কানপুরের (Kanpur) সুগন্ধি ব্যবসায়ী পীযূষ জৈনের (Piyush Jain) কনৌজের (Kannauj) আবাসে এখনও আয়কর বিভাগ ও জিএসটি-র অভিযান চলছে। সূত্র থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুসারে, কনৌজে কালোটাকা (Back Money) উপার্জনকারী ‘সমাজবাদী পারফিউম’ প্রস্তুতকারক পীযূষ জৈনের বাড়ি থেকে নোট ভর্তি আটটি প্লাস্টিকের বস্তা পাওয়া গিয়েছে। এছাড়াও সোনার বিস্কুট ও রূপাও উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার রাত থেকে তিনটি নোট কাউন্টিং মেশিন বসানো হয়েছে। এ পর্যন্ত নগদ ৮০ কোটি (Crore) টাকা (Indian Rupee) পাওয়া গেছে। বেডরুম, বাথরুম, রান্নাঘর সব থেকে নগদ টাকা ও গয়না উদ্ধার করছেন অফিসাররা। এখনও পর্যন্ত কানপুর এবং কনৌজে পীযূষের বাড়িগুলি থেকে ২৫৭ কোটি নগদ, ১৫ কেজি সোনা এবং ৫০ কেজি রূপা উদ্ধার করা হয়েছে। অফিসাররা এখনও নোট গুনতে ব্যস্ত।

উল্লেখ্য, পীযূষ জৈনের কানপুরের বাড়ির আলমারি থেকে পাওয়া নগদ টাকার ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশ ভাইরাল হয়েছে। কানপুরের পর এখন কনৌজে অবস্থিত তাঁর বাড়ি থেকে প্রচুর নগদ টাকা এবং সোনা-রূপা বের হচ্ছে। সূত্র জানায়, অভিযানে কয়েকটি ডায়েরি ও বিলও পাওয়া গেছে। সেখানে অনেক কোম্পানির কাঁচামাল ক্রয়-বিক্রয়ের কথা উল্লেখ রয়েছে। সূত্র জানায়, অভিযানে জড়িত টিম এখন এসব কোম্পানির সঙ্গে যোগাযোগ করে বিল ও ডায়েরিতে লিপিবদ্ধ তথ্য যাচাই করবে। এই খবরে তাঁর সঙ্গে যুক্তদের মধ্যে আতঙ্ক তৈরি হয়েছে।

কনৌজের আতরের বড় ব্যবসায়ীদের মধ্যে পীযূষ জৈনকে গণনা করা হয়। তিনি ৪০টিরও বেশি কোম্পানির মালিক। এর মধ্যে দুটি কোম্পানি বিদেশেও রয়েছে। কনৌজে পীযূষের পারফিউম ফ্যাক্টরি, কোল্ড স্টোরেজ এবং পেট্রোল পাম্পও রয়েছে। মুম্বাইতে পীযূষের হেড অফিস আছে। সেখানে তার একটি বাংলোও রয়েছে। পীযূষ জৈন আতরের সব ব্যবসা করেন মুম্বাই থেকে, এখান থেকে তার পারফিউম বিদেশেও পাঠানো হয়। মাত্র কয়েকদিন আগে তিনি সমাজবাদী পার্টির নামে সুগন্ধি আতর লঞ্চ করেছিলেন।

Related Articles

Back to top button