নতুন খবরভারতবর্ষ

ধর্ষকদের এনকাউন্টার করায় হায়দ্রাবাদ পুলিশকে তালিবানি বলে রাগ প্রকাশ করলেন কংগ্রেস নেতা কপিল সিবাল।

হায়দ্রাবাদ এনকাউন্টার (Hyderabad Encounter) কাণ্ডের বিতর্ক থামার নাম নিচ্ছে না। ডঃ দিশার (নাম পরিবর্তিত) ধর্ষণকারী ও হত্যাকারীদের পুলিশ গুলি করে মেরে দিয়েছে। এতে সাধারণ জনতা খুশি প্রকাশ করেছে, ডঃ রেড্ডির পরিবার খুশি প্রকাশ করেছে। কিন্তু সেকুলার গ্যাং, বুদ্ধিজীবী গ্যাং ও বেশকিছু রাজনৈতিক নেতা এর বিরোধিতায় নেমে পড়েছে। সেকুলার গ্যাং মাঠে অনেক আগেই নেমে কান্নাকাটি শুরু করেছে। আর এখন ভিন্ন ভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতারা তাদের মরাকান্না শুরু করেছে। বামপন্থী নেতা সীতারাম ইয়েচুরি, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জী (Mamata Banerjee), কংগ্রেসের বরিষ্ঠ নেতা পি চিদাম্বরম ও হায়দ্রাবাদে সাংসদ আসাউদ্দিন ওয়েসীর পর এবার এনকাউন্টারের বিরোধিতা করতে নেমেছেন কংগ্রেসের বরিষ্ঠ নেতা ও উকিল কপিল সিবাল (Kapil Sibal)।

কপিল সিবাল বলেন তালিবানের মতো করে ন্যায় দেওয়ার চেষ্টা করলে আদালত অপ্রাসঙ্গিক হয়ে যাবে। কপিল সিবাল একটি টুইট বার্তায় বলেছেন, “আমি তেলঙ্গানা এনকাউন্টারকে সাধুবাদ জানানো লোকদের কাছে বলতে চাই যে যথাযথ আইনী প্রক্রিয়া অনুসরণ না করে রক্তপাত ও তালিবান ধরণের ন্যায়বিচার অনুসরণ করলে তা আদালতকে অপ্রাসঙ্গিক করে তুলবে।” উল্লেখ্য যে হায়দরাবাদে একটি পশুচিকিত্সককে গণধর্ষণ ও হত্যার মামলায় গ্রেপ্তার করা চার আসামিকে শুক্রবার হায়দরাবাদ পুলিশ এনকাউন্টার করে মেরে ফেলেছে।

এতে পুরো দেশ আনন্দ প্রকাশ করেছে, দেশের মানুষ পুলিশকে ধন্যবাদ ও সমর্থন জানিয়েছেন। স্থানীয় লোকজন হায়দ্রাবাদ পুলিশ জিন্দাবাদ শ্লোগান দিয়েছিল এবং পুলিশকে মিষ্টি খাইয়ে সম্বোধন করেছিল। কিন্তু পুলিশের কার্যবাহীতে খুশি প্রকাশ করতে পারছেন না কিছু রাজনৈতিক নেতারা। যার মধ্যে কপিল সিবাল একজন।

সিব্বাল হায়দ্রাবাদ পুলিশকে তালিবানিদের সাথে তুলনা করেছেন। জানিয়ে দি, কপিল সিব্বাল এই উকিল যিনি রাম মন্দির নির্মাণের বিরোধিতা করে আদালতে বহুবার অবেদন করেছিলেন। অযোধ্যায় মন্দির নির্মাণের রায় যেন তাড়াতাড়ি না আসে তার জন্যেও প্রচেষ্টা চালিয়েছিলেন কপিল সিবাল। আর এখন উনি এনকাউন্টার নিয়ে হায়দ্রাবাদ পুলিশের বিরুদ্ধে মুখ খুলেছেন।

Related Articles

Back to top button