Press "Enter" to skip to content

৩১ মে পর্যন্ত রাজ্যে চলবে ট্রেন! বড় ঘোষণা কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী ইয়েদুরাপ্পা’র

শেয়ার করুন -

ব্যাঙ্গালুরুঃ গোটা দেশে আজ সোমবার থেকে লকডাউনের চতুর্থ পর্যায় লাগু হয়েছে। আর এই লকডাউনে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে রাজ্য গুলোকে নিয়ম বানানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে। সেই মর্মেই কর্ণাটক (Karnataka) সরকার নতুন গাইডলাইন্স জারি করল। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা (Yediyurappa) রাজ্যে সরকারি আর বেসরকারি বাস চালানোর অনুমতি দিলেন।

সোমবার মুখ্যমন্ত্রী লকডাউন ৪.০ এর দিশা নির্দেশ জারি করার সময় বলেন, কন্টেনমেন্ট জোনে কড়া ভাবে লকডাউন লাগু করা হবে। কারণ সেখান থেকে করোনা ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা অনেক বেশি। যদিও, অন্য এলাকায় এই লকডাউনে ছাড় দেওয়া হবে।

রাজ্যে সমস্ত দোকান খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এর সাথে সাথে রাজ্যের ভিতরে ট্রেন চালানোরও অনুমতি দেওয়া হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, গুজরাট, মহারাষ্ট্র, কেরল আর তামিলনাড়ুর মানুষদের রাজ্যে প্রবেশ করার অনুমতি দেওয়া হবে না। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বেসরকারি বাস গুলোকে চালানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে। উনি বলেন, বাসে ৩০ জন যাত্রীই নেওয়া হবে আর মাস্ক পরা এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা আবশ্যক হবে। উনি জানান, বাসের ভাড়াও বাড়বে না।

মুখ্যমন্ত্রী বলেন অন্তঃরাজ্য পরিবহণকে মঞ্জুরি দেওয়া হবে না। কেবলমাত্র জরুরী পরিষেবার জন্য এই অনুমতি দেওয়া হবে। আর এই জন্য অটো, ট্যাক্সি চালানোর অনুমতি দেওয়া হবে না। জরুরী পরিস্থিতি পরিবহণে চালক সমেত তিনজনকে বসার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

উনি জানান, আগামী ৩১ মে পর্যন্তই রাজ্যে ট্রেন চালানো হবে। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, সেলুন খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। পার্ক সকাত সাতটা থেকে ৯টা আর বিকেল পাঁচটা থেকে সাতটা পর্যন্ত খোলা হবে। উনি বলেন, শপিংমল আর সিনেমা হল বাদে সমস্ত দোকান খোলা হবে। উনি এও জানান যে, রবিবার সম্পূর্ণ লকডাউন থাকবে।