নতুন খবরভারতবর্ষ

কেরলে সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ন্ত্রণে নিল বাম সরকার, বাক স্বাধীনতা ইস্যুতে ট্যুইটারে সীতারাম ইয়েচুরিকে ধুয়ে দিলেন পি চিদম্বরম

তিরুবনন্তপুরমঃ কেরলের (Kerala) রাজ্যপাল আরিফ মোহম্মদ খান বিরোধীদের ব্যাপক বিরোধিতার পরেও শনিবার সিপিএম (Cpim) এর নেতৃত্বাধীন LDF সরকারের কেরল পুলিশ আইনে সংশোধনের অর্ডিন্যান্সকে মঞ্জুরি দিয়ে দিয়েছে। এবার সোশ্যাল মিডিয়ায় আপত্তিজনক পোস্ট করলে পাঁচ বছরের সাজা হতে পারে। এই আইন নিয়ে কংগ্রেসের বরিষ্ঠ নেতা পি চিদম্বরম চটে গিয়েছেন। উনি বরিষ্ঠ বাম নেতা সীতারাম ইয়েচুরির কাছে এই আইন নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

রাজ্য সরকার জানিয়েছে যে, এই অর্ডিন্যান্স মহিলা আর বাচ্চাদের বিরুদ্ধে সাইবার অপরাধ রোখার জন্য আনা হয়েছে। আরেকদিকে, কংগ্রেস সমেত রাজ্যের তামাম বিরোধী দল এই অর্ডিন্যান্সের বিরোধিতা করেছে। কংগ্রেসের বরিষ্ঠ নেতা তথা প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী পি চিদিম্বরম বলেছেন, আমি এই অর্ডিন্যান্সের খবর শুনে স্তব্ধ।

কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরম ট্যুইট করে বলেন, কেরল LDF সরকার দ্বারা সোশ্যাল মিডিয়ায় তথাকথিত আপত্তিজনক পোস্ট করার জন্য ৫ বছরের সাজা শুনে আমি স্তব্ধ। আরেকটি ট্যুইট করে উনি লেখেন, ‘আমার মিত্র সিপিআইএম এর মহাসচিব সীতারাম ইয়েচুরি এই অত্যাচারী নির্ণয়কে ডিফেন্ড কীভাবে করবেন?”

বিরোধীরা অভিযোগ করে বলেছে যে, এই অর্ডিন্যান্সের মাধ্যমে রাজ্যের বাক স্বাধীনতা ছেনার চেষ্টা করা হচ্ছে। রাজ ভবনের সুত্র অনুযায়ী, কোভিড-১৯ এর থেকে সেরে ওঠার পর নিজের আধিকারিক আবাসে ফিরে রাজ্যপাল এই অর্ডিন্যান্সে স্বাক্ষর করেছেন। বিরোধীরা জানান, এই সংশোধন পুলিশ আর শাসক দলকে আরও বেশি শক্তি দেবে এবং সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতায় রাশ টানা হবে।

Back to top button
Close