Press "Enter" to skip to content

করোনার নিয়ম ভাঙায় কিমের নির্দেশে অভিযুক্তকে প্রকাশ্য দিবালোকে গুলি করে মারল সেনা

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ উত্তর কোরিয়ার (North Korea) স্বৈরাচারী শাসক কিম জং উন (Kim Jong-un) নিজের নিষ্ঠুরতার জন্য গোটা বিশ্বে বিখ্যাত। আরও একবার ওনার নিষ্ঠুরতার চর্চা গোটা বিশ্বে হওয়া শুরু হয়েছে। এবারের মামলা করোনা ভাইরাসের সাথে যুক্ত। উল্লেখ্য, করোনার নিয়ম ভঙ্গ করার জন্য কিম অভিযুক্তকে প্রকাশ্যে গুলি করিয়ে মেরে ফেলে।

করোনার সংক্রমণ রোখার জন্য উত্তর কোরিয়ায় কড়া নিয়ম লাগু আছে। নিয়মের পালন না করলে অভিযুক্তদের কড়া শাস্তির নিদান দেওয়া হয়েছে। এমনকি মৃত্যুর সাজার কথা পর্যন্ত বলা হয়েছে। যদিও, উত্তর কোরিয়ায় মৃত্যুর সাজা খুব একটা বড় বিষয় না।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, উত্তর কোরিয়ায় সম্প্রতি এক ব্যক্তিকে শুধুমাত্র করোনার জন্য জারি নিয়ম লঙ্ঘন করার জন্য প্রাণ হারাতে হয়। স্বৈরাচারী শাসক কিম জন উং এতটাই ক্ষেপে যায় যে, ওই ব্যক্তিকে করোনার নিয়ম লঙ্ঘন করার জন্য মৃত্যুর সাজা শোনায়।

রেডিও ফ্রি এশিয়ার সুত্র থেকে ইংরেজি সংবাদ মাধ্যম ডেইলি মেইল লেখে, করোনার নিয়ম নিয়ে মানুষের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করার জন্য কিমের আদেশে ২৮ নভেম্বর উত্তর কোরিয়ার সেনা এক ব্যক্তিকে প্রকাশ্যে এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে হত্যা করে।

অভিযুক্ত ব্যক্তি নিয়ে বলা হয় যে, সে করোনার নিয়ম ভেঙে চীনের সামগ্রীর চোরাচালান করেছিল। আর তাকে স্থানীয় পুলিশ হাতেনাতে পাকড়াও করেছিল। এরপর ফায়ারিং স্কোয়াড তাকে প্রকাশ্যে গুলি করে। জানিয়ে দিই, করোনার কারণে উত্তর কোরিয়া নিজেদের সীমান্ত মার্চ মাসে থেকে বন্ধ করে রেখেছে।