নতুন খবরভারতবর্ষরাজনীতি

‘মন্দিরে গিয়ে দেশ বরবাদ করছে গান্ধী পরিবার, এই নাটক বন্ধ করুন” কংগ্রেসকে ধমক বাম নেত্রী শৈলজার

তিরুবনন্তপুরমঃ কেরলের (Kerala) প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী কে.কে শৈলজা (K. K. Shailaja) কংগ্রেসের বিরুদ্ধে ‘সফট হিন্দুত্ব”র মাধ্যমে দেশকে বরবাদ করার অভিযোগ তুলেছেন। শৈলজা ইন্দিরা গান্ধী আর রাজীব গান্ধীর সময় স্মরণ করেই রাহুল গান্ধীর বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করেছেন।

বাম নেত্রী তথা কেরলের প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী শৈলজা বলেছেন, গান্ধী মন্দিরে মন্দিরে ঘোরে, শিব মন্দিরেও যায়। ওদের এমন করা উচিৎ না, কারণ ভারত একটি ধর্মনিরপেক্ষ দেশ। শৈলজা গান্ধীদের এই কাজকে নাটক আখ্যা দিয়ে কেরলের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতির কাছে আবেদন করেছেন যে, তিনি যেন ধর্মনিরপেক্ষ কেরলের মান বজায় রাখতে এমন নাটক না করেন।

 

কেকে শৈলজা করোনা মহামারীর প্রথম ঢেউয়ের সময় ‘কেরল মডেল” নিয়ে চর্চায় ছিলেন। মিডিয়া মহামারীর সঙ্গে মোকাবিলায় কেরল মডেলের জন্য কেকে শৈলজাকে আশার থেকে বেশী গুরুত্ব দেয়, কিন্তু ওনার দলই ওনাকে স্বাস্থ্যমন্ত্রী পদ থেকে হটিয়ে দেয়।

শৈলজার এই বয়ানের পর ত্রিপ্পুনিতুরা থেকে কংগ্রেসের বিধায়ক কে. বাবু বিধানসভার স্পিকারের কাছে জানতে চান যে, মন্দিরে যাওয়া কি অপরাধ? বলে দিই, কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী নির্বাচনের আগে হিন্দু ভোট পাওয়ার জন্য অনেক মন্দিরে মন্দিরে যাত্রা করেছিলেন। রাহুল গান্ধী মুসলিম তোষণের অপবাদ থেকে বাঁচতেই নির্বাচন এলে মন্দিরের যাত্রা করতেন। যদিও, একসময় রাহুল গান্ধীই বলেছিলেন যে, যারা মন্দিরে যায় তাঁরা ইভটিজিং করে।

Related Articles

Back to top button