নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

নিজের সভার ভিড় দেখিয়ে দিলীপ ঘোষকে কটাক্ষ করতে গিয়ে ট্রোলড কুণাল ঘোষ, নেটিজেনরা দিল শিক্ষা

কলকাতাঃ বঙ্গের শেষ দু’দফা নির্বাচনের আগে কড়া নির্দেশিকা জারি করেছে নির্বাচন কমিশন। ওই নির্দেশিকা অনুযায়ী, রাজ্যে শেষ দু’দফা ভোট প্রচারে কোনও বড় জনসভা করা যাবে না। হবে না কোনও মিছিল, রোড শো এবং পদযাত্রা। এমনকি কমিশনের তরফ থেকে রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলোকে ৫০০-র বেশি যাতে লোক জড় না হয়, সেদিকে কড়া ভাবে নজর রাখতে বলা হয়েছে।

কমিশনের এই সিদ্ধান্তের পর রাজ্যের রাজনৈতিক দলগুলো সমস্ত বড় সভা স্থগিত করে দেয়। মূলত দেশ এবং রাজ্যে বেড়ে চলা করোনার সংক্রমণের কারণেই এই কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে কমিশনের পক্ষ থেকে।

আর এরই মধ্যে তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় অ্যাকাউন্টে একটি পোস্ট করে বিতর্ক সৃষ্টি করলেন। কুণাল ঘোষ নিজের ফেসবুকে পোস্ট করে লিখেছেন, ‘শনিবার। মানিকতলা কেন্দ্রে 14 নম্বর ওয়ার্ডে একই সময়ে প্রায় পাশাপাশি সভা। ওপাশে দিলীপ ঘোষ বক্তা। এপাশে আমরা।” এই পোস্টের সঙ্গে উনি দুটি ছবিও জুড়েছেন তিনি।

ওই ছবি দুটোর মধ্যে একটা ছবি ওনার সভার। আরেকটি বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। ছবিতে ওনার জনসভায় বেশ ভিড় দেখা গিয়েছে। তবে সেই ভিড় সামাজিক দুরত্ব পালন করেনি। আরেকটি ছবিতে তিনি দিলীপ ঘোষের সভার ভিড় দেখিয়েছেন, সেখানে দিলীপ ঘোষের জনসভায় তুলনামূলক অনেক কম ভিড় দেখা গিয়েছে। তবে সেই ছবিতে সামাজিক দুরত্ব পালন করার ছবি ধরা পড়েছে।

উল্লেখ্য, কমিশনের নির্দেশ অনুযায়ী জনসভায় কোভিড নিয়ম পালন করতে হবে, মাস্ক পরতে হবে এবং অবশ্যই সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে হবে। কিন্তু কুণালবাবুর জনসভায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখার নিয়ম পালন করতে দেখা যায়নি।

কুণালবাবু নিজের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ছবিটি পোস্ট করা মাত্রই সাবি ওনাকে পাল্টা খোঁচা দেন। তাঁদের দাবি অনুযায়ী, দিলীপ ঘোষের সভায় ভিড় কম এবং সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা হয়েছে। কিন্তু কুণালবাবুর সভায় সেই সামাজিক দুরত্ব অমিল। আর সেই নিয়ে কটাক্ষের শিকার কুণাল ঘোষ।

Related Articles

Back to top button