Press "Enter" to skip to content

বোম ধামাকায় অল্পের জন্য প্রাণ বাঁচল জঙ্গি হাফিজ সাঈদ এর ছেলে তলহা সাঈদের! RAW এর উপর দোষ চাপালো পাকিস্তান

শেয়ার করুন -

জঙ্গি সংগঠন লস্কর-তৈবা (Lashkar-e-Taiba) এর প্রধান আর মুম্বাই বোমা হামলার মাস্টার মাইন্ড হাফিজ সাঈদ (Hafiz Saeed) এর ছেলে তলহা সাঈদ (Talha Saeed) কে নিশানা বানিয়ে পাকিস্তানে হামলা হয়। প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, পাকিস্তানের লাহোরে একটি র‍্যালিতে এই হামলা চালানো হয়। সুত্র অনুযায়ী, এই হামলায় তলহা সাঈদ অল্পের জন্য রক্ষা পেয়েছে। পাকিস্তান (Pakistan) এই হামলার পিছনে ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা এবং অ্যানালাইসিস উইং RAW এর হাত আছে বলে জানিয়েছে। যদিও ভারতের তরফ থেকে পাকিস্তানের এই অভিযোগ খারিজ করে দেওয়া হয়েছে।

প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, শনিবার এই ঘটনা ঘতেছে। শোনা যাচ্ছে যে, তলহা সাঈদ টাউনশিপে মোহম্মদ আলী রোডের জামা মসজিদে একটি বৈঠক করছিল। আর তখনই একটি জোরদার ধামাকা হয়। এই ধামাকার পরেই তলহা সাঈদ সেখান থেকে বেরিয়ে যায়। উক্ত ধামাকায় লস্করের এক সমর্থকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা যায়। আর ছয় জন আহত হয়েছে। যদিও পাকিস্তানি মিডিয়া প্রথমে জানিয়েছিল যে, গ্যাস সিলিন্ডার ফেটে এই ধামাকা হয়েছিল, কিন্তু পরে এটিকে হামলা বলে জানানো হয়।

তলহা সাঈদ হল জঙ্গি হাফিজ সাঈদ এর বড় ছেলে। হাফিজ সাঈদের পর লস্কর এ তইবা এর কম্যান্ড তাঁর হাতেই আছে। একটি মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ভারতের বিরুদ্ধে বড়সড় জঙ্গি গতিবিধি হাফিজ সাঈদের ছেলে তলহা সাঈদই করে।

আপনাদের জানিয়ে রাখি, আমেরিকা গোটা বিশ্বে সন্ত্রাসবাদের জন্য দায়ী মানুষদের তালিকায় হাফিজ সাঈদের নাম রেখেছে। হাফিজ সাঈদের উপর এক কোটি ডলারের পুরস্কারও ঘোষণা করা হয়েছে। হাফিজ সাঈদ আরবী আর ইঞ্জিনিয়ারিং এর প্রফেসর ছিল। মুম্বাই হামলার পর হাফিজ সাঈদের ভূমিকা নিয়ে ভারত তাঁর বিরুদ্ধে ইন্টারপোলে রেড কর্নার নোটিশ জারি করেছে, আর আমেরিকে হাফিজ সাঈদকে মোস্ট ওয়ান্টেড জঙ্গিরা তালিকায় রেখেছে।