Press "Enter" to skip to content

বাজপেয়ী আমলে লাদাখের রাস্তার অনুমোদন দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু ১০ বছর সেই রাস্তা করেনি কংগ্রেস! অভিযোগ লাদাখের কাউন্সিলরের

শেয়ার করুন -

লাদাখঃ ভারত-চীন সীমান্ত বিবাদের মধ্যে লাদাখের (Ladakh) জনস্কারের (Zanskar) কাউন্সিলর কংগ্রেসের (Congress) বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ করেছেন। উনি বলেন, ২০০৪ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত কংগ্রেস লেহ-মানালি রোডের নির্মাণকার্য বন্ধ করে রেখেছিল। বাজপেয়ী (Atal Bihari Vajpayee) সরকার এই কাজের মঞ্জুরি দেওয়ার পর পালাবদল হয়ে কংগ্রেস আসলে কাজ বন্ধ হয়ে যায়।

কাউন্সিলর স্টাঞ্জিন লাম্পা বলেন, ‘ইউপিএ সরকারের আমলে রাষ্ট্রীয় সুরক্ষার সাথে যুক্ত রাস্তার নির্মাণ অনেক ধীর গতিতে চলে। ২০০৪ থেকে ২০১৪ পর্যন্ত কোন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় কায হয়নি। কংগ্রেস লেহ-মানালি রোড নির্মাণে অলসতা দেখিয়েছে। ২০০৭ এ লেহ-মানালি সড়ক তৈরি হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সেটা হয়নি। প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী এই প্রকল্পের জন্য মঞ্জুরি দিয়েছিলেন।”

FIle Pic

জানিয়ে দিই, কংগ্রেসের নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকারের থেকে মোদী সরকারের আমলে ভারত সীমান্ত মজবুত হয়েছে। ২০০৮  থেকে ২০১৪ পর্যন্ত ইউপিএ সরকার সীমান্তের পাশে মাত্র একটি সুড়ঙ্গ বানিয়েছিল/ ৭ হাজার ২৭০ মিটার ব্রিজ বানানো হয়েছে আর ৩ হাজার ৬১০ কিমি রাস্তা বানানো হয়েছে। আরেকদিকে ২০১৪ থেকে ২০২০ পর্যন্ত মোদী সরকার সীমান্তের পাশে ৬ টি সুড়ঙ্গ বানিয়েছে। আরও ১৯ টি সুড়ঙ্গ বানানোর পরিকল্পনা চলছে। এছাড়াও মোদী সরকার গত ছয় বছরে ১৪ হাজার ৪৫০ মিটার ব্রিজ বানিয়েছে এবং ৪ হাজার ৭৬৪ কিমি রাস্তা বানিয়েছে।

উল্লেখ্য, কংগ্রেস আমলে পরিকাঠামর জন্য বাজেট খুব কম ঘোষণা হয়েছিল। ২০১৬ এর পর মোদী সরকার পরিকাঠামোর কাজে দ্রুততা আনে আর বাজেটও বাড়িয়ে দেয়। ২০০৮ থেকে ২০১৬ এর মধ্যে পরিকাঠামো মজবুত করতে ৩ হাজার ৩০০ থেকে ৪ হাজার ৬০০ কোটি টাকা দেওয়া হয়। আর ২০১৬ এর পর পরিকাঠামো মজবুত করার জন্য বাজেটে ৫ হাজার ৪৫০ টাকা ঘোষণা করা হয়। এরপর ২০১৮-১৯ এ ৬৭০০ কোটি, ২০১৯-২০ এ ৮০৫০ কোটি আর এই বছর ১১৮০০ কোটি টাকা পরিকাঠামো মজবুত করতে ঘোষণা করা হয়েছে।

২০১৮ এর CAG রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১২ পর্যন্ত ৬১ টি রাস্তার নির্মাণ হয়েছিল। কিন্তু ২০১৬ পর্যন্ত মাত্র ২২ টি রাস্তা নির্মাণ করা হয়। ওই ২২ টি রাস্তায় ৪ হাজার ৫৩৬ কোটি টাকা খরচ করা হয়। আর গোটা প্রোজেক্টের জন্য ৪ হাজার ৬২২ কোটি টাকা ঘোষণা করা হয়েছিল।