নতুন খবরভারতবর্ষ

সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রতিবাদের পর নোটে থুতু লাগিয়ে ভাইরাস ছড়ানো উন্মাদী হল গ্রেফতার! দেওয়া হবে বেধড়ক চিকিৎসা

দেশ বিপদের মধ্যে রয়েছে এবং এখন বিভিন্ন মানুষের আসল পরিচয় ফুটে উঠছে। ভণ্ডামির চশমা ভেঙে এখন কট্টরপন্থীদের আসল স্বরূপও দেশের সামনে ধরা পড়েছে। উন্মাদীরা দেশজুড়ে কি করতে চাইছে তা সবার সামনে স্পষ্ট হয়েছে। জানিয়ে দি তাবলীগ জামাতের উপদ্রবের কারণে পুরো দেশ আরো বিপদে পড়ার দিকে এগিয়ে গেছে। এর মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশকিছু ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যা ভারতীয়দের চিন্তন করতে বাধ্য করেছে। সম্প্রতি এক ভিডিও ভাইরাল হয়েছে যেখানে এক কট্টরপন্থী ভারতীয় নোটের মাধ্যমে ভাইরাস ছড়ানোর হুমকি দিয়েছিল তথা নোটের উপর থুতু লাগিয়ে ভিডিও বানিয়েছিল।

ভিডিওটি আমরাও খবরের মাধ্যমে পাঠকদের কাছে তুলে ধরেছিলাম। যার পর জনতা তীব্রতার সাথে অপরাধীর গ্রেফতারের দাবি তুলেছিল। এখন মহারাষ্ট্র থেকে একটা ভালো খবর সামনে আসছে। নাসিক পুলিশের তরফে জানানো হয়েছে ভিডিওর মাধ্যমে ভাইরাস ও আতঙ্কবাদ ছড়ানোর হুমকি দেওয়ার উন্মাদীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

ভিডিওতে কট্টরপন্থী বলেছিল, কোরোনা রোগের কোনো ওষুধ নেই কারণ এটা রোগ নয় এটা আল্লাহর সাজা। ভিডিওটি সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক ভাইরাল হয়েছে এবং অনেকে সাবধান হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। এইভাবে ৫০০ টাকার একগুচ্ছ নোটের মধ্যে থুতু দিয়ে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার আশঙ্কাকে অনেকে করোনা জিহাদ নাম দিয়েছেন।

আর এখন নাসিক পুলিশ এ কট্টরপন্থীকে গ্রেফতার করেছে বলে জানা যাচ্ছে। খুব শীঘ্রই কট্টরপন্থীর উন্মাদী মানসিকতার চিকিৎসা শুরু হবে বলে মনে করা হচ্ছে। যদিও এরম আরো কিছু উন্মাদীরা ভিডিও টিকটক ও অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম এ পাওয়া যাচ্ছে যারা ধর্মের নামে উন্মাদনা ও ভাইরাস ছড়ানোর কাজ করছে।

Back to top button
Close