অপরাধনতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

তৃণমূল ঘনিষ্ঠদের বিরুদ্ধে নাবালিকাকে গণধর্ষণের অভিযোগ মালদায়, পদক্ষেপ নিচ্ছে না পুলিশ

মালদাঃ মালদার রতুয়া থানার দেবীপুর গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকার মাকাইয়া গ্রামে এক নাবালিকা স্কুল ছাত্রীকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠলো এলাকারই তিন ব্যক্তির বিরুদ্ধে। পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েও বিচার পাওয়া যাচ্ছে না বলে অভিযোগ তুলেছে নির্যাতিতার পরিবার। তাঁদের মতে ওই তিন ব্যক্তি শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস ঘনিষ্ঠ হওয়ায় পুলিশ তাঁদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ নিচ্ছে না।

নির্যাতিতার পরিবার জানিয়েছে যে, তাঁদেরই পাশের গ্রাম বালুপুরের রহিমুল হক নামের এক ব্যক্তি তাঁদের মেয়েকে পড়তে যাওয়ার সময় জোড় করে তুলে নিয়ে যায়। এরপর রহিমুল তাঁর দুই সঙ্গীর সহযোগিতায় তাঁকে মাদক খাইয়ে সারাদিন ধরে ধর্ষণ করে তাঁরা। সবশেষে তাঁকে গ্রামের মধ্যে ফেলে দিয়ে পালায় অভিযুক্তরা।

নাবালিকাকে অচৈতন্য অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এরপর প্রাথমিক চিকিৎসার পর কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠলে নির্যাতিতা সমস্ত কথা খুলে জানায়। মেয়ের সঙ্গে ঘটে যাওয়া এই অমানবিক কাণ্ডের কথা শুনে মাথায় বাজ পড়ে পরিবারের সদস্যদের মাথায়। তৎক্ষণাৎ তাঁরা রতুয়া থানায় অভিযোগ দায়ের করে। কিন্তু রহিমুল হক তৃণমূল ঘনিষ্ঠ হওয়ায় পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেছে নির্যাতিতার পরিবার।

ঘটনার পর থেকে রহিমুল আর তাঁর দুই সঙ্গী এলাকা ছেড়ে পালিয়েছে। আর এবার বিজেপির তরফ থেকে দোষীদের উপযুক্ত শাস্তি না দিলে আন্দোলনে নামার হুমকি দেওয়া হয়েছে। বিজেপির তরফ থেকে অভিযোগ করে বলা হয়েছে যে, ধর্ষকরা তৃণমূল ঘনিষ্ঠ হওয়ায় পুলিশ কোনও ব্যবস্থা নিচ্ছে না। অন্যদিকে তৃণমূল জানিয়েছে যে, অভিযুক্তদের দায়িত্ব তাঁরা নেবে না। দোষী প্রমাণ হলে পুলিশ/প্রশাসন তাঁদের উপযুক্ত শাস্তি দেবে।

Related Articles

Back to top button