Press "Enter" to skip to content

এবার মালদহ! ধর্ষণের পর পুড়িয়ে খুন, তরুণীর অর্ধনগ্ন অগ্নিদগ্ধ দেহ উদ্ধার ফাঁকা মাঠ থেকে

শেয়ার করুন -

প্রথমে হায়দ্রাবাদ তারপর বিহার আর আজ সকালে উত্তর প্রদেশের উন্নাও তে ধর্ষণের পর ধর্ষিতাকে পুড়িয়ে খুন করার ঘটনা সামনে এসেছে। আর আজ পশ্চিমবঙ্গের মালদহ জেলা থেকে ঠিক একই রকম ঘটনা সামনে এলো। মালদহের কোতয়ালি থানার ধানতলা গ্রামের ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। সেখানে উদ্ধার হয়েছে এক তরুণীর নগ্ন পোড়া দেহ। দেহটি ময়না তদন্তের জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ। প্রাথমিক তদন্তের পর অনুমান করা হচ্ছে যে, তরুণীকে ধর্ষণের পর পুড়িয়ে মারা হয়েছে। গোটা ঘটনার তদন্তে নেমেছে মালদহ পুলিশ।

বৃহস্পতিবার সকালে মালদহের ধানতলা এলাকার ফাঁকা মাঠে এক তরুণীর নগ্ন পোড়া দেহ দেখা যায়। এরপর খবর দেওয়া হয় থানায়। খবর পাওয়ার পর ইংরেজবাজার পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন মহিলা থানার পুলিশ এবং ডিএসপি প্রশান্ত দেবনাথ। ঘটনাস্থলে থাকা পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়ার উপস্থিতিতে তরুণীর দেহ ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়।

ডিএসপি প্রশান্ত দেবনাথ জানান, তরুণীর উর্দ্ধাঙ্গ পুড়ে গিয়েছে এবং যৌনাঙ্গেও ক্ষতর চিহ্ন পাওয়া গেছে। তিনি জানান, প্রাথমিক তদন্তে এটি ধর্ষণের ঘটনা বলেই মনে হচ্ছে। ডিএসপি জানান, প্রমাণ লোপাটের জন্য কেরোসিন তেল ঢেলে তরুণীকে পুড়িয়ে মারা হয়েছে। আপাতত তরুণীর কোন পরিচয় পাওয়া যায়নি। তবে পুলিশ সমস্ত ঘটনার তদন্ত করছে। অবিলম্বে অভিযুক্তদের গ্রেফতার এবং উপযুক্ত শাস্তির দাবি জানিয়েছে এলাকাবাসী।

হায়দ্রাবাদের গণধর্ষণ কাণ্ডের পর ক্ষোভে ফুঁসছে গোটা দেশ। সবাই এখন ধর্ষণে কড়া আইন এবং ধর্ষকদের ফাঁসির সাজার দাবি তুলছে। আরেকদিকে কেন্দ্র সরকার ধর্ষকদের বিরুদ্ধে কড়া আইন আনার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে, এবং সমস্ত বিরোধী দলকে সেই আইনে সহমত হওয়ার আবেদন জানানো হয়েছে। কিন্তু এত কিছুর পরেও দেশে ধর্ষণের মাত্রা বিন্দু মাত্রও কমেনি। রোজই দেশের মা-মেয়েরা কোথাও না কোথাও নৃশংসতার শিকার হচ্ছেন।