Press "Enter" to skip to content

হিংসার অভিযোগ খারিজ মমতার, বললেন পুরনো ছবি দেখাচ্ছে বিজেপি

শেয়ার করুন -

কলকাতাঃ রাজ্যে ফের একচ্ছত্র ভাবে ক্ষমতায় এসেছে তৃণমূল। একদিকে বিজেপি যখন ২০০ আসন নিয়ে জয় পাওয়ার লক্ষ্য রেখেছিল, তখন আরেকদিকে তাঁদের ১০০-র নীচে আটকে দিয়ে একাই ২০০ আসন নিয়ে নবান্নে ফিরলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে দোসরা মে ফল ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই রাজ্যজুড়ে হিংসার খবর সামনে আসছে। বিজেপির তরফ থেকে তৃণমূলের দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে বলা হয়েছে যে, বিগত ২৪ ঘণ্টায় তাঁদের ৬ জন কর্মীদের রাজনৈতিক হিংসায় প্রাণ হারাতে হয়েছে আর একাধিক পার্টি অফিসে ভাঙচুর চালানো হয়েছে। যদিও মুখ্যমন্ত্রী বিজেপির সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দিয়েছেন।

মুখ্যমন্ত্রী পাল্টা অভিযোগ করে বলেছেন যে, বিজেপি পুরনো ছবি দেখিয়ে রাজ্যে অশান্তি ছড়ানোর চেষ্টা করছে। রবিবার বিপুল সংখ্যক আসনে জয়ের পর সোমবার কালীঘাটে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেখানে তিনি বলেন, ‘আমরা এতবড় জয় পাওয়ার পরেও সবাইকে শান্ত থাকার অনুরোধ করছি। ভোটে হার-জিত রয়েছে। পুলিশ আইনশৃঙ্খলার দিকটা দেখুক।”

মুখ্যমন্ত্রী এদিন বলেন, ‘বিজেপি অনেক অত্যাচার করেছে। কোচবিহারের পুলিশ সুপার কমিশনের নির্দেশ মতো কাজ করেছেন। ভোটে কেন্দ্রীয় বাহিনী অনেক অত্যাচার করেছে।” মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘বর্ধমান আর শীতলকুচিতে আজও ঝামেলা হয়েছে। বিজেপি হারার পরেও অত্যাচার চালিয়ে যাচ্ছে।” এরপর মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিজেপি পুরনো ছবি দেখিয়ে আমাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করছে। আমরা এসব আগেও দেখেছি। ওঁরা ক করতে পারে জানা আছে।

আরেকদিকে, কালীঘাটের বাড়ি থেকে সাংবাদিক বৈঠকে ‘দলবদলু’দের জন্য বিশেষ বার্তা দিলেন মমতা ব্যানার্জি। তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যাওয়া নেতা-মন্ত্রীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, ‘তাঁরা আসতে চাইলে আবারও ফিরে আসতেই পারেন’। অর্থাৎ দলবদলুদের আবারও তৃণমূলে ফিরতে কোন বাঁধা নেই, তাই স্পষ্ট করে দিলেন মমতা ব্যানার্জি।