নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গ

মমতা ব্যানার্জী গো-ব্যাক পোস্টারে ছেয়ে গেল নন্দীগ্রাম! মুখ্যমন্ত্রীর সভার আগেই বাড়ল উত্তাপ

নন্দীগ্রামঃ শুভেন্দু অধিকারীর তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর আজ প্রথম নন্দীগ্রামে সভা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। আরেকদিকে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নন্দীগ্রামের পাল্টা দক্ষিণ কলকাতায় তৃণমূল নেত্রীর গড়ে পদযাত্রা করবেন শুভেন্দু অধিকারী। এছাড়াও আজ ডায়মন্ড হারবারে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের এলাকায় সভা বিজেপি নেতা শোভন চট্টোপাধ্যায়ের। এছাড়াও সেখানে উপস্থিত থাকবেন বৈশাখী বন্দ্যোপাধ্যায়। আজ ব্যাক টুঁ ব্যাক রাজনৈতিক অনুষ্ঠানের দিকে নজর রয়েছে সবার।

আর এরই মধ্যে নন্দীগ্রামে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভার আগেই পড়ল ‘মমতা ব্যানার্জী গো ব্যাক” পোস্টার। মুখ্যমন্ত্রীর সভার আগে এহেন পোস্টারের কারণে নন্দীগ্রামে ছড়িয়েছে রাজনৈতিক উত্তাপ। শাসক দল তৃণমূলের তরফ থেকে অভিযোগ করে বলা হয়েছে যে, বিজেপির লোকজন এই পোস্টার লাগিয়েছে। যদিও বিজেপির তরফ থেকে সমস্ত অভিযোগ খারিজ করে দেওয়া হয়েছে।

বিজেপির তরফ থেকে বলা হয়েছে যে, নন্দীগ্রামের মানুষই তৃণমূল নেত্রীর বিরোধিতা করছে। এর সাথে বিজেপির কোনও যোগ নেই। আরেকদিকে, তৃণমূল নেতা অখিল গিরি বিজেপির দিকে অভিযোগের আঙুল তুলে বলেছেন, এসব করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভায় জনপ্লাবন আটকানো যাবে না।

জানিয়ে রাখি, এ বছরের শুরুতেই নন্দীগ্রামে সভা করার কথা ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। ৭ জানুয়ারি সেই সভার দিনক্ষণ ঠিক করা হয়েছিল। কিন্তু আচমকাই অখিল গিরি করোনা আক্রান্ত হওয়ায় তৃণমূল নেত্রীর সভা রদ করা হয়। যদিও, সেদিন নন্দীগ্রামে সভা করেছিল তৃণমূল। কিন্তু সেই সভায় উপস্থিত ছিলেন না মুখ্যমন্ত্রী।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভা রদ হওয়ার পর বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী কটাক্ষ করে বলেছিলেন যে, অনেকেই সভা করার নাম করে পগারপার হয়ে যায়। শুভেন্দু অধিকারী এও বলেছিলেন যে, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নন্দীগ্রামে যেদিন সভা করবে, তাঁর পরের দিনই আমি নন্দীগ্রামে সভা করব। কথামতো নন্দীগ্রামে শুভেন্দু অধিকারীর পাল্টা সভাও ঠিক হয়ে গিয়েছে।

জানিয়ে রাখি, দীর্ঘ পাঁচ বছর পর আজ নন্দীগ্রামে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। ২০১৬ এর জানুয়ারি মাসে শেষবার গিয়েছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর আজ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নন্দীগ্রাম সভায় এই প্রথম অধিকারী পরিবারের কেউই উপস্থিত থাকছেন বলে সুত্রের খবর। কাঁথির তৃণমূল সাংসদ শিশির অধিকারীর থেকে সদ্য দু-দুটি পদ কেড়ে নিয়েছে তৃণমূল। আর সেই কারণে তিনি ক্ষোভে এই সভায় যাচ্ছেন না বলেই খবর। আরেকদিকে, তৃণমূলের আরও এক সাংসদ তথা অধিকারী পরিবারের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য দিব্যেন্দু অধিকারীও আজ এই সভায় থাকবেন না বলেই সুত্রের খবর।

Related Articles

Back to top button