নতুন খবরভারতবর্ষ

কেন্দ্রের সাথে সরাসরি সঙ্ঘাতের পথে মুখ্যমন্ত্রী! রাজ্যের মুখ্যসচিব আর DGP কে দিল্লী পাঠাবে না মমতার সরকার

কলকাতাঃ রাজ্যের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) সরকার আর কেন্দ্র সরকারের মধ্যে চাপানউতোর আরও বেড়ে চলেছে। বিজেপির সভাপতি জেপি নাড্ডার (JP Nadda) কনভয়ে হা’ম’লা’র পর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় রাজ্যের মুখ্য সচিব আর ডিজিপিকে দিল্লী তলব করে। কিন্তু এখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার নিজের আধিকারিকদের দিল্লী পাঠাবে না বলে সাফ জানিয়ে দেয়। সরকার জানায়, পশ্চিমবঙ্গের মুখ্য সচিব আর ডিজিপি ১৪ ডিসেম্বর দিল্লী যেতে পারবে না। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয় দ্বারা তলব করার পর রাজ্য সরকারের এই পদক্ষেপ উত্তেজনা আরও বাড়তে পারে।

রাজ্যের মুখ্য সচিব আর ডিজিপিকে দিল্লী তলব করার পর তৃণমূল কংগ্রেস শুক্রবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয়ের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। তৃণমূল জানিয়েছে যে, রাজ্যের প্রতিটি বিষয়ে হস্তক্ষেপ করার মতো পরিস্থিতি সৃষ্টি করছে কেন্দ্রের মোদী সরকার। তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ কল্যাণ বন্দ্যোপাধ্যায় আর সৌগত রায় অভিযোগ করে বলেছে যে, নাড্ডার কনভয়ে অপরাধী আর গুণ্ডারা ছিল যারা হিংসা উস্কে দেওয়ার জন্য হাতি’য়া’র নিয়ে ঘুরছিল।

মুখ্যমন্ত্রী প্রেস কনফারেন্সে জানান, ‘রাজ্য সরকারের থেকে রিপোর্ট চাওয়ার জন্য কেন্দ্র সরকার চিঠি পাঠিয়ে যেই কাজ করছে, সেটা অসাংবিধানিক। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রালয়ের তরফ থেকে মুখ্য সচিব আর ডিজিপিকে তলব করা অনস্বীকার্য।” তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামো ভাঙার জন্য বিজেপি আর কেন্দ্র সরকার রাজ্যে সবরকম প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।”

মুখ্যমন্ত্রী বলেন, বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষের উস্কানিমূলক ভাষণের জন্য রাজ্যের পরিস্থিতি খারাপ হচ্ছে। তিনি বলেন, নাড্ডার কনভয়ে অপরাধীরা আর সমাজবিরোধীরা হাতিয়া’র নিয়ে ছিল। জানিয়ে দিই, গতকাল জেপি নাড্ডার কনভয়ে হা’ম’লা’য় বিজেপির মহাসচিব কৈলাস বিজয়বর্গীয় সমেত বিজেপির অনেক নেতারা আহত হন। নাড্ডার কনভয়ে হা’ম’লা নিয়ে আজ রাজ্যপাল জগদিপ ধনখড় একটি প্রেস কনফারেন্স করেন, সেখানে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে হুঁশিয়ারির সুরে বলেন, হয় নিজের সংবিধান পালন করুন, নাহলে আমি নিজের ভূমিকা পালন করব।

Related Articles

Back to top button