নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

বনগাঁয় সভার মাঝেই মুখ্যমন্ত্রীর কাছে দাবি জানাল দর্শকরা, তীব্র ভর্ৎসনা তৃণমূলনেত্রীর

বনগাঁঃ আজ বনগাঁর গোপালনগর থেকে বিজেপিকে একের পর এক ইস্যুতে আক্রমণ করে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। NRC ইস্যু নিয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দেগে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যের সবাই নাগরিক। এখানে কাউকে NRC করতে দেবো না। কেন্দ্রের নয়া কৃষি আইন নিয়েও সরব হন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, কেন্দ্র এমন এক আইন তৈরি করেছে যার কারণে কৃষকরা আলুসেদ্ধ ভাতও খেতে পারবে না।

বিজেপির বিরুদ্ধে আজ টাকা ছড়ানো এবং দলীয় নেতাদের ভয় দেখিয়ে দলে টানারও অভিযোগ করেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী টাকা না ছড়িয়ে আর ভয় না দেখিয়ে বিজেপিকে রাজনৈতিক ভাবে লড়াই করার চ্যালেঞ্জ জানান। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নাম না করে বিজেপিকে কটাক্ষ করে বলেন, কখনও রামচিমটি, কখনও শ্যামচিমটি কখনও গোবর্ধনচিমটি! কেন এরকম?

তবে সভার মাঝে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়েন তিনি। সেখানেই হারিয়ে ফেলেন মেজাজ। সভার মাঝে দর্শকের তরফ থেকে কিছু একটা দাবি জানানো হয়। সভার মাঝে এভাবে দর্শকদের তরফ থেকে দাবি জানানোয় মেজাজ হারান মুখ্যমন্ত্রী। তবে তিনি দর্শকদের বক্তব্য শোনেন আর বলেন, যদি কারোর কোনও অভিযোগ থাকে অথবা দাবি থাকে, তাহলে যেন নিয়ম মেনে জানানো হয়। প্রয়োজন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কিন্তু এভাবে সভার কাজে যেন বাধা না দেওয়ার হয়। এরপর তিনি আবারও ভাষণ দেন।

কিন্তু সভা শেষ হওয়ার পর জানা যায় যে, দর্শকদের প্ল্যাকার্ড তুলে ধরার ব্যাপারটা সঠিক ভাবে নিতে পারেন নি মুখ্যমন্ত্রী। আর এই কারণে তিনি মেজাজ হারান। আর তাদের উদ্দেশ্যে সরাসরি বলেন যে, ‘ কিছু মনে করবেন না, আপনাদের কিছু মানুষের জন্য মনটা খারাপ হয়ে গেল।”

Related Articles

Back to top button