নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

একদিকে গোটা বিজেপি, কেন্দ্র সরকার! একদিকে আমি! দেখিয়ে দেব কার কত জোরঃ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কলকাতাঃ কৃষি আন্দোলনকে কেন্দ্র করে মোদী সরকারের (Narendra Modi) নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে আবারও গর্জে উঠলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। এদিন তিনি মেয়ো রোডে গান্ধী মূর্তির পাদদেশ থেকে জানিয়ে দেন যে, কৃষকদের পাশে আছে তৃণমূল (All India Trinamool Congress)। তিনি সভা থেকে কেন্দ্রের বঞ্চনার বিরুদ্ধে সবাইকে এক হওয়ার আহ্বান জানান।

তিনি আজ সভা থেকে নিজের করা সিঙ্গুর আন্দোলনের কথা মনে করিয়ে দেন। তিনি বলেন, কৃষকদের স্বার্থে ২৬ দিন ধর্মতলা মোড়ে অনশন করেছিলাম। সেদিনও কৃষকদের পাশে ছিলাম, আজও কৃষকদের পাশে আছি। জমি অধিগ্রহণ করতে দেব না বলে মৃত্যু মুখে দাঁড়িয়ে লড়াই চালিয়ে গেছি।

তিনি সভা থেকে বলেন, কেন্দ্রের তিনটি আইনই কৃষি বিরোধী। আমাদের সরকার আর আমাদের দল তৃণমূল কংগ্রেস সর্বদা কৃষকদের পাশে থাকবে। এদিন তিনি মূল্যবৃদ্ধি নিয়েও সরব হন। এছাড়াও তিনি আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দ্বারা করা নতুন সংসদ ভবনের শিলন্যাস আর ভূমি পুজো নিয়ে সুর চড়ান। তিনি বলেন, কয়েক হাজার কোটি টাকা দিয়ে বিলাসবহুল সংসদ ভবন বানানো হচ্ছে, সেই টাকা কৃষকদের দেওয়া দরকার ছিল।

তিনি বিজেপিকে আক্রমণ করে বলেন, ওঁরা চায় দেশে ওঁরা একাই থাকবে আর কেউ থাকবে না। তিনি কেন্দ্র সরকারকে আক্রমণ করে বলেন, কেন্দ্রের মোদী সরকার দেশের সংবিধান গনতন্ত্র কিছুই মানছে না। রাজীব গান্ধী ৪০০ সাংসদ নিয়ে অতটা অহংকার দেখান নি, যতটা নরেন্দ্র মোদী ৩০০ সাংসদ নিয়ে দেখাচ্ছে। উনি ভাবছেন যা ইচ্ছে তাই করবেন।

এদিন সভা থেকে আবারও বিজেপির গায়ে বহিরাগতর তকমা লাগান মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেন, বিজেপি বাংলার দল নয়, বিজেপি দিল্লী, গুজরাটের দল। তিনি গ্রাম বাংলার মানুষের কাছে আবেদন করে বলেন, গ্রামে বাইরের কাউকে দেখলেই থানায় জানান। তিনি বিজেপির সরকারকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে বলেন, ‘একদিকে গোটা বিজেপি দল, কেন্দ্র সরকার। একদিকে আমি। দেখিয়ে দেব কার কত জোর।”

Related Articles

Back to top button