Press "Enter" to skip to content

সুস্থ হয়ে গেলেও কেউ হাসপাতালের বেড ছাড়তে চাইছে না! গুরুতর অভিযোগ মমতা ব্যানার্জীর

শেয়ার করুন -

কলকাতাঃ রাজ্য জুড়ে করোনায় প্রাণ হারানো রোগীর সৎকার নিয়ে হওয়া অশান্তিতে মুখ্য খুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী (Mamata Banerjee)। উনি ক্ষোভ উগড়ে বললেন, আমার ডেডবডির মধ্যে চুল্লি বানিয়ে পুড়িয়ে দিন। এই ঘটনায় তিনি বিজেপিকেই কাঠগড়ায় তোলেন। আজকের সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে করোনা রোগীদের সৎকার নিয়ে হওয়া বিক্ষোভের কারণে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী। আজ এই বিষয়ে বলতে গিয়ে মেজাজও হারিয়ে ফেলেন তিনি। তিনি বলেন, ইচ্ছে করে করোনায় মৃত রোগীদের সৎকার করতে বাধা দেওয়া হচ্ছে।

উনি ধাপার প্রসঙ্গ তুলে ধরে বলেন, সেখানে মাত্র একটি চুল্লিতে দেহ সৎকার হচ্ছে। এরফলে সৎকার করতে আরও দেরি হচ্ছে। মৃতের আত্মীয় পরিজনরা অস্থি দেরীতে পাচ্ছেন। মুখ্যমন্ত্রী আজ বলেন, সরকার ম্যাজেশিয়ান নয়। এখনো পর্যন্ত করোনার কোন ওষুধ আবিস্কার হয়নি। রাজ্যের চিকিৎসক আর স্বাস্থ্য কর্মীরা নিজেদের মতো চিকিৎসা করছে। আমরা সরকার, ভগবান নই।

উনি বলেন, কলকাতার কোথাও কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করার জায়গা পাওয়া যাচ্ছে না। সবাই নিজের নিজের পাড়ায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করতে বাধা দিচ্ছে। এরকম করলে কীভাবে চলবে? মুখ্যমন্ত্রী সবাইকে মানবিক হয়ে মানুষের কথা ভাবার অনুরোধ করছেন। উনি এও বলেন যে, হাসপাতালে কেউ সুস্থ হয়ে গেলেও বেড ছাড়তে চাইছে না। এই বিষয়ে বিরক্ত প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী।