Press "Enter" to skip to content

কোনো শহীদ পরিবারের বাড়ি গেছেন কি! দীপিকাকে ধিক্কার জানিয়ে বললেন সেনা জওয়ান।

শেয়ার করুন -

দিল্লীর JNU ইউনিভার্সিটিতে হিংসার পর বলিউড অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন ক্যাম্পাসে পৌঁছেছিলেন। যা নিয়ে এখন নতুন বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছে। বামপন্থী ছাত্রদের সমর্থনে দীপিকা পাড়ুকোন JNU ক্যাম্পাসে পৌঁছে ছিলেন। যার পর দেশে নতুন বিতর্কের জন্ম নিয়েছে। দীপিকার এই পদক্ষেপের পর হেড কনস্টেবল মনোজ ঠাকুর আক্রোশিত হয়েছেন। সেনা জওয়ান মনোজ ঠাকুর দিপীকা পাড়ুকোনের JNU যাওয়া নিয়ে আপত্তি প্ৰকাশ করেছেন। মনোজ ঠাকুর বলেছেন টুকরে টুকরে গ্যাং তো শুধু মাথায় আঘাত পেয়েছে, কিন্তু পুলবাম হামলার পর আমাদের শহীদদের মাথাও ফিরে আসেনি।

মনোজ ঠাকুর বলেছেন পুলবামা হামলার সময় কতজনের বাড়ি গেছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। সেই সময় কতজন শহীদের বাড়ি গেছিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। সেনা জওয়ান মনোজ ঠাকুর বলেছেন, সিনেমা জগতে অভিনয় মানায় কিন্তু রিয়েল লাইফে নয়।

জানিয়ে দি, দীপিকা পাড়ুকোনের ছবি ছাপাক ১০ জানুয়ারি মুক্তি পাচ্ছে। এমন অবস্থায় দীপিকা JNU গিয়ে নিজেকেই সমস্যায় ফেলেছেন বলে দাবি করেছে অনেকে। কারণ সোশ্যাল মিডিয়ায় দীপিকা পাড়ুকোন ও তার সিনেমা বয়কট করার ট্রেন্ড জোর দিয়ে চলছে। টুকরে টুকরে গ্যাং এর সমর্থনে দীপিকা পাড়ুকোন JNU গেছেন এই অভিযোগে নিয়ে দীপিকার বিরোধিতা শুরু করছে।

কিছুজন দীপিকা পাড়ুকোনের পুরানো ভিডিও বের করেছে যেখানে দীপিকা রাহুল গান্ধীকে প্রধানমন্ত্রী পদে দেখার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। দীপিকা পাড়ুকোন এক ইন্টারভিউতে বলেছিলেন রাহুল গান্ধী দেশের যুব সমাজের জন্য আদর্শ, আমি চাই রাহুল গান্ধী একদিন দেশের প্রধানমন্ত্রী পদে বসুক। আর এখন রাহুল গান্ধীর নিয়ে বলা সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়েছে। সাথে দীপিকা পাড়ুকোনকে বয়কটের জোর দাবি উঠেছে।