নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

জোট করার নাম করে বারবার কংগ্রেসকেই ধোঁকা দিচ্ছে তৃণমূল, ফের ভাঙছে দল

কলকাতাঃ ২০২৪ এর লোকসভা নির্বাচনে কেন্দ্র থেকে মোদী সরকারকে (Narendra Modi Government) উৎখাত করতে কোমর বেঁধে মাঠে নেমেছে তৃণমূল কংগ্রেস (All India Trinamool Congress)। গোটা দেশে মোদী বিরোধী হাওয়া তুলতে সব দলগুলিকে এক সঙ্গে নিয়ে চলার সংকল্প নিয়েছেন তৃণমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জী (Mamata Banerjee)। আর সবাইকে এক সঙ্গে নিতে গেলে যে সবার আগে কংগ্রেসকে (Congress) হাত করতে হবে, সেটাও ভালমতো জানে তৃণমূল কংগ্রেস। আর এই কারণে কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গে যোগাযোগও রাখছে রাজ্যের শাসক দল।

কিন্তু বিড়ম্বনা হল, একদিকে যখন কংগ্রেসকে সঙ্গী করে মোদী বিরোধী হাওয়া তুলতে তৎপর হয়েছে তৃণমূল, তখন আরেকদিকে এই কংগ্রেসকেই দিনের পর দিন ভেঙে চলেছে ঘাসফুল শিবির। কিছুদিন আগে দেশের প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের পুত্র অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন। এছাড়াও অসমের কংগ্রেস নেত্রী সুস্মিতা দেব কদিন আগে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন।

অন্যদিকে, রাহুল গান্ধি তথা কংগ্রেস ঘনিষ্ঠ নেতা সাকেত গোখলে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন। ত্রিপুরার প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি পীযুষ কান্তি বিশ্বাস দলত্যাগ করার ঘোষণা করেছেন। শোনা যাচ্ছে যে তিনি খুব শীঘ্রই তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন। আর এরমধ্যেই উঠে আসছে আরও এক প্রভাবশালী কংগ্রেস নেত্রীর নাম, যিনি রবিবার তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন।

প্রাক্তন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্রর (Somen Mitra) স্ত্রী শিখা মিত্র (SIkha Mitra) আগামীকাল তৃণমূলের ঝাণ্ডা হাতে তুলে নিতে পারেন বলে জানা যাচ্ছে। যদিও এই প্রথম না, এর আগেও তিনি একবার তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন। তবে শিখা মিত্র দাবি করেছেন যে, তিনি কোনদিনও তৃণমূল ছাড়েন নি, তাই নতুন করে যোগ দেওয়া বা ঘর ওয়াপসির কথাই আসছে না। তবে শিখা মিত্র তৃণমূলে যোগ দিলে ওনার পুত্র রোহন মিত্র কী করবেন, সেটা এখনও জানা যায় নি।

উল্লেখ্য, একসঙ্গে হাত ধরে চলার পরিকল্পনার মাঝে বারবার কংগ্রেসে আঘাত হেনে তাঁদের নেতা/নেত্রীদের নিজের দলে টেনে নিয়ে যাওয়া তৃণমূলের এই কাজকে কংগ্রেস হাইকম্যান্ড কতটা ভালো ভাবে নেবে, সেটা বলা মুশকিল। তবে ওয়াকিবহাল মহলের মতে, যেই রাজ্যে কংগ্রেস খুবই দুর্বল সেখান থেকে দল ভাঙিয়ে নেওয়াকে গান্ধি পরিবার গুরুত্ব দিতে নারাজ। বিশেষ করে তৃণমূল কংগ্রেসের মতো দল যদি তাঁদের নেতাদের নিয়ে নিজেদের শক্ত করতে পারে, তাহলে তাঁরা তাতে আপত্তি জানাবে না।

Related Articles

Back to top button