নতুন খবরভারতবর্ষ

ভোটিং মেশিনের অপব্যবহার না করলে উত্তরপ্রদেশে বিজেপি হেরে যাবে: মায়াবতী

‌ভারতের মতো গণতান্ত্রিক দেশে ভোটাধিকারই হচ্ছে সাধারণ মানুষের আওয়াজ। তাদের আওয়াজ তুলে ধরার জন্যেই কাজ করে নির্বাচন কমিশন। তবে রাজনীতির চক্করে পড়ে নানা ঝঞ্ঝাটে পড়তে হয় নির্বাচন কমিশনকে। সম্প্রতি উত্তরপ্রদেশের নির্বাচন নিয়ে চর্চা তুঙ্গে। এর মধ্যে নির্বাচন কমিশনের কাছে এক বিশেষ আর্জি জানালেন বহুজন সমাজ পার্টির নেত্রী তথা উত্তর প্রদেশের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মায়াবতী।

তিনি আর্জি জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশন যাতে উত্তর প্রদেশ,পাঞ্জাব, উত্তরাখণ্ড ও অন্যান্য রাজ্যে নির্বাচনের সময় রাজনীতিতে ধর্মীয় অনুপ্রবেশের যেনো প্রতিবন্ধকতা রাখেন। ধর্মপ্রাণ এই দেশে ধর্মের মত সংবেদনশীল আবেগের অপব্যাবহার হচ্ছে কি না ,তার দিকে কমিশন যেন বিশেষ নজর দেয়। এমনকি তিনি উত্তর প্রদেশের জন সাধারণের কাছে আর্জি জানিয়েছেন তারা যেন নির্বাচনের এই লোভনীয় ঘোষণাপত্রে পা না দেয়।

 

মায়াবতীর বলেন, উত্তরপ্রদেশ সরকার ভোটিং মেশিনে কারচুপি করার চেষ্টা করবে। তার দাবি, যদি বিজেপি মেশিনে কারচুপি না করে তাহলে তাদের পক্ষে জেতা সম্ভব নয়। সরকারী যন্ত্রপাতির অপব্যবহার করে ও ভোটিং মেশিনে হেরফের করে তবেই বিজেপি জিততে পারবে। নাহলে গেরুয়া শিবিরের হার নিশ্চিত বলে মত মায়াবতীর।

তার কথা অনুযায়ী, কিছু দল আছেন যারা সাধারণ মানুষকে প্রতিশ্রুতি দেন যে তারা ছাত্র ছাত্রীদের, মহিলাদের, বয়োজ্যেষ্ঠদের, কৃষকদের, শ্রমিকদের, দিন মুজুরদের, ব্যাবসায়ীদের, সমাজের দুর্বল শ্রেণীদের সার্বিক উন্নতি ও কল্যাণসাধন করবেন। কিন্তু উত্তর প্রদেশের সাধারণ মানুষের উচিৎ এই লোভনীয় ফাঁদে পা না দেওয়া।তিনি আরো বলেন যে সরকারের উচিৎ নির্বাচন কমিশন কে ভয় পাওয়া।

Related Articles

Back to top button