Press "Enter" to skip to content

থুতু দিয়ে রুটি বানাতে গিয়ে হাতেনাতে ধরা পড়ল নৌশাদ, শুঁটিয়ে লাল করে দিল হিন্দু সংগঠনের কর্মী

শেয়ার করুন -

মেরঠঃ উত্তর প্রদেশের মেরঠের মেডিক্যাল থানা এলাকার অ্যারোমা গার্ডেন হাউসে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে তন্দুরি রুটি বানানোর সময় থুতু দেওয়া যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর ওই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর হিন্দু সংগঠনের কর্মী এবং এক মহিলা আইনজীবী অভিযুক্ত যুবককে চড়-থাপ্পড় মারেন। অভিযুক্তকে চড়-থাপ্পড় মারার ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়।

উল্লেখ্য, সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া ভিডিওতে এক যুবককে তন্দুরি রুটি বানানোর সময় সেটিতে থুতু দিতে দেখা গিয়েছে। এরপর হিন্দু সংগঠনের কর্মীরা ওই যুবকের বিরুদ্ধে মেডিক্যাল থানা এলাকায় মামলা দায়র করে। এরপর পুলিশ অভিযুক্ত নৌশাদকে লিসাড়ি গেট থাকা এলাকার সমর গার্ডেনে তাঁর বাড়ি থেকে গ্রেফত্র করে। পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর হিন্দু সংগঠনের এক কর্মী এবং এক মহিলা আইনজীবী অভিযুক্ত যুবককে পেটায়। পুলিশ তাঁদের হাত থেকে কোনওমতে অভিযুক্তকে বাঁচিয়ে থানায় নিয়ে যায়।

শুক্রবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল, যেখানে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে এক যুবককে তন্দুরি রুটির মধ্যে থুতু দিয়ে রুটি বানাতে দেখা গিয়েছিল। ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়ার পর কোন এলাকার ভিডিও সেটা বেরিয়ে আসে আর অভিযুক্তের খোঁজও পাওয়া যায়।

এরপর হিন্দু সংগঠনের কর্মীরা ওই যুবককে গ্রেফতার করার দাবি জানায়। থানায় অভিযোগ দায়ের করে হিন্দু সংগঠনের কর্মীরা যুবকের বিরুদ্ধে ধর্ম ভ্রষ্ট করা এবং মহামারী ছড়ানোর অভিযোগ করে। ভিডিও ভাইরাল হওয়ার পর এবং থানায় অভিযোগ জমা হওয়ার পর পুলিশ অভিযুক্ত নৌশাদকে গ্রেফতার করে।