Press "Enter" to skip to content

না না আমি এটা বলতে চাইনি! আজাদ কাশ্মীরের পোস্টার ভাইরাল হওয়ার পর সাফাই তরুণীর

শেয়ার করুন -

মুম্বাইয়ে জেএনইউ হিংসার বিরুদ্ধে হওয়া প্রদর্শনে ‘ফ্রি কাশ্মীর” এর পোস্টার হাতে নেওয়া মহিলা এবার সাফাই দিলেন। এর আগে মহারাষ্ট্রের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী দেবেন্দ্র ফড়নবিশ সমেত দেশের অনেক নেতাই এই পোস্টার নিয়ে আপত্তি জাহির করেছেন। এই পোস্টার নিয়ে প্রতিবাদ করার মেয়ের নাম মেহেক মির্জা প্রভু।

This is the truth behind the Lady holding the placard "Free Kashmir" at Gateway protest. The picture created by entire social media came as an absolute shock to me. Placard meant freedom to express themselves, freedom from the internet lockdown which many people have been voicing for. I was voicing my solidarity for basic constitutional right. No other agenda or motive what so ever. If by being naive in understanding the impact it would have , and in the process create this stir. I apologise. I am artist who believes in basic human compassion. Please spread let power of love over come hate.

Geplaatst door Mehak Mirza Prabhu op Maandag 6 januari 2020

মেহেক ফেসবুকে একটি ভিডিও জারি করে এই বিতর্কের সাফাই দেন। মেহেক জানায় সে পেশায় একজন লেখিকা। আর সে কাশ্মীরের না মহারাষ্ট্রের বাসিন্দা।

মেহেক জানায়, তাঁর পোস্টারের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় যেমন ভাবে বিতর্ক ছড়িয়েছে সেটাতে সে আঘাত পেয়েছে। এই পোস্টারের পিছনে তাঁর কোন এজেন্ডা আর মোটিভ ছিলোনা।

 

মেহেক ফেসবুকে একটি পোস্টে লেখেন, ‘এই পোস্টারের মানে ছিল নিজের স্বাধীনতা, ইন্টারনেট লক ডাউনের থেকে আজাদি। আমি সংবিধানিক অধিকারের সমর্থনে আওয়াজ উঠিয়েছিলাম মাত্র।”

যদিও মেহেক লেখে, এই পোস্টারের যেমন প্রভাব পড়তে পারে আর যেমন বিতর্ক ছড়িয়েছে, সেটা নিয়ে আমি দুঃখ প্রকাশ করি। মেহেক লেখে, আমি একজন আর্টিস্ট আর মানবীয় সংবেদনায় ভরসা রাখি। মেহেক লেখে, দয়া করে আমার এই বক্তব্য গুলোকে ঠিক করে দেখা হোক। আমি চাই হিংসার উপরে ভালোবাসার জয় হোক।