নতুন খবররাজনীতি

উত্তর প্রদেশের ছাত্রদের ১০ শতাংশ সংরক্ষণ দিয়ে দাও, ওঁরাই AMU-জামিয়ার চিকিৎসা করে দেবেঃ কেন্দ্রীয় মন্ত্রী

আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয় (AMU) আর জামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ে যারা বিরোধিতা করছে, তাঁরা সবাই রাজনীতি করছে। জেএনইউ আর জামিয়া মিলে যতগুলো ছাত্র পড়ে, তাঁর থেকে বেশি ছাত্র মেরঠের কলেজে সিএএ এর সমর্থন করেছে। এই কথা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ডঃ () একটি জনসভায় বলেন। উনি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের দিকে তাকিয়ে বলেন, আপনিই কিছু কোর্টে পারবেন। পশ্চিমের ছাত্রদের ১০ শতাংশ সংরক্ষণ পাইয়ে দিন, জামিয়া-এএমইউ এর চিকিৎসা তাঁরা করে দেবে।

পশুপালন, ডেয়ারি আর মৎস পালন মন্ত্রী ডঃ বলিয়ান বলেন, পাকিস্তান থেকে যেসব শরণার্থী এখানে এসেছে, সেগুলোর মধ্যে আমাদের আটটি পরিবার আছে। নাগরিকতা সংশোধন আইন পাস হওয়ার আগে আমিও এই ব্যাপারে বেশি কিছু জানতাম না। কিন্তু এরপর যখন পরিবারের প্রধানের সাথে কথা বলি তখন সত্য সামনে আসে। এক পরিবারের প্রধান বলেন, কেমন ভাবে পাকিস্তানে হিন্দু আর সংখ্যালঘুদের মা-বোনদের জোর করে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। এরক্ম অত্যাচার সহ্য করা মানুষকে যখন নাগরিকতা দেওয়া হচ্ছে, তখন সেটারও বিরোধিতা করা হচ্ছে।

উত্তর প্রদেশের আখ মন্ত্রী সুরেশ রানা বলেন, মোদীজী অনেক ভালো কাজ করেছেন আর সেটা এরা সহ্য করতে পারছে না। ভারত তেরে টুকড়ে টুকড়ে বলা মানুষগুলো যদি ভালো হয়ে যায়, তাহলে দেশের সামনে আর কেউ টিকতে পারবে না।

উনি বলেন, সিএএ এর বিরোধিতা যারা করছে তাঁদের মিডিয়া থেকে প্রশ্ন করা হলে বলছে, আমাদের ট্রাক্টরের কাগজ দেখাতে হবে। আবার কেউ কেউ বলছে সবাই এসেছে তাই এসেছি। উনি বলেন, ভুল বুঝিয়ে এদের হাতে পাথর তুলে দেওয়া হয়েছে। উনি বলেন, এই টুকড়ে টুকড়ে গ্যাং দেশকে ভাগ করার কাজ করছে।

Back to top button
Close