নতুন খবরভারতবর্ষ

হাইড্রোজেন মহাশক্তি হিসেবে উঠে আসতে চলেছে ভারত! মিশন হাইড্রোজেন শুরু করল মোদী সরকার

প্রকৃতি পরিবর্তনশীল, আর সেই সাথে তাল মিলিয়ে মানুষের জীবনও নিয়মিত পাল্টাচ্ছে। আজ আপনার জীবনে যা অত্যন্ত প্রয়োজনীয় তা কাল বোঝা মনে হতে পারে।বিপরীতে আজ যা অপ্রয়োজনীয় তা পরবর্তীতে অত্যন্ত মূল্যবান হিসেবে পরিচিত হতে পারে। আজ থেকে ১৫ বছর পর গ্রিন হাইড্রোজেন মানুষের জীবনের অপরিহার্য বস্তুতে পরিণত হতে চলেছে।

জানিয়ে দি,বিজ্ঞানীদের ধারণা গ্রীন হাইড্রোজেন এক ধরনের রাসায়নিক পদার্থ যা আগামী সময়ের শক্তি উৎপাদক হিসেবে উঠে আসতে চলেছে। গ্রিন হাইড্রোজেন পক্রিয়া দ্বারা নির্মিত হয় যাতে কোনো গ্রিন হাউস গ্যাস উৎপন্ন হয় না। ইতিমধ্যে ভারত (India) গ্রিন হাইড্রোজেনেয ব্যবহার বৃদ্ধির জন্য রাষ্ট্রীয় হাইড্রোজেন (Hydrogen) মিশনেই ঘোষণা করেছে। ইতিমধ্যে লারসেন এন্ড টার্বো কোম্পানি হাইড্রোজেন ইন্ডাস্ট্রির উপর মনোযোগ দিতে শুরু করেছে।

ভারত হাইড্রোজেন মিশন শুরু করেছে ঠিকই তবে অস্ট্রেলিয়ার মতো দেশও এই কাজে পিছিয়ে নেই।২০১৮ সাল থেকে অস্ট্রেলিয়া হাইড্রোজেন ব্যবহার করে জাহাজ,স্টিল প্লান্ট চালানের উপর গবেষণা শুরু করেছে।বিশেষজ্ঞদের মতে ভারত হাইড্রোজেন ইন্ডাস্ট্রির সম্ভাবনা আগেই বুঝতে পেরেছে যে কারণে তারা অনেকটা এগিয়ে রয়েছে এবং ভবিষৎতে ভারত হাইড্রোজেন ইন্ডাস্ট্রির মহাশক্তিতে পরিণত হতে পারে।

মার্কেট ধরার টার্গেট নিয়ে লারসেন এন্ড টার্বো কোম্পানি মোটা টাকা ইনভেস্ট করেছে একই সাথে ভারত ও প্রতিবেশী দেশগুলির থেকে আগামী ২ বছরে ২ বিলিয়ন ডলার ব্যাবসার সম্ভাবনা দেখছে।

Related Articles

Back to top button