নতুন খবরভারতবর্ষ

খাজানা ভান্ডার খুলে দিল মোদী সরকার: ৩ মাস ফ্রীতে দেওয়া হবে চাল, ডাল, গরিবদের একাউন্টে ঢুকে যাবে টাকা

পুরো দেশে করোনা ভাইরাসের মহামারির মধ্যে দেশের মানুষ সংকটে পড়েছে। প্রধানমন্ত্রী মোদী হাত জোড় করে দেশের কাছে অনুরোধ করেছে সকলে যেন লকডাউনের পালন করে এবং একজোট হয়ে পরিস্থিতির মোকাবিলা করে। তবে এই পরিস্থিতিতে খাদ্য সঙ্কট নিয়ে অনেকের মধ্যে প্যানিক তৈরি হয়েছে। অনেকে জায়গায় খুচরো দোকানদাররা বাজারে মাল কিনতে গেলে বাধা প্রাপ্ত হচ্ছেন বলে জানা যাচ্ছে। ফলস্বরূপ খাদ্য, সবজি, দুধ নিয়ে মানুষের মনে বড় প্যানিক তৈরি হয়েছে। অনেক বাজারের রাত অবধি সামনে লম্বা লাইন পর্যন্ত দেখা গেছে। মানুষ দাবি তুলেছে তাদের খাদ্য, সবজির ব্যাবস্থা করে দেওয়া হোক।

দেশের এমন কঠিন সময়ে () সরকারের তরফ থেকে বড় ঘোষণা করা হয়েছে। আজ অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন দেশের এই যুদ্ধকালীন পরিস্থিতিতে ১ লক্ষ ৭০ হাজার কোটি টাকার প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন। যার মধ্যে দেশের ৮০ কোটি নাগরিকের জন্য অন্ন যোজনা ঘোষণা করা হয়েছে। কেন্দ্র ও রাজ্য সরকারগুলি যুদ্ধকালীন পরিস্থিতির মতো মাঠে নেমে পড়েছে। এর মধ্যে ভারত সরকার দেশবাসীর উদ্যেশে যে ঘোষণা করেছে তা সকলের মুখে হাসি ফোটাবে।

কেন্দ্র সরকার আজ বিপিএল ধারকদের আগামী তিন মাস ফ্রীতে গ্যাস সিলিন্ডার দেওয়ার ঘোষণা করেছে।

২০ কোটি মহিলাকে প্রতি মাসে ৫০০ টাকা করে দেওয়া হবে যা ৩ মাস অবধি চলবে। জনধন একাউন্ট থাকা মহিলাদের খাতায় ডাইরেক্ট ৫০০ টাকা করে প্রতিমাসে পৌঁছে দেওয়া হবে।

৮ কোটির বেশি কৃষকের ব্যাংক একাউন্টে সরাসরি ২ হাজার করে টাকা প্রদান করা হবে।

সবথেকে বড় ঘোষণা এই যে, প্রায় ৮০ কোটি ভারতীয় মাথাপিছু প্রতি মাসে বিনামূল্যে ৫ কিলো করে চাল ও ৫ কিলো করে পাবেন।

এছাড়াও যে সব সংস্থার ১০০ এর থেকে কম কর্মী তাদের মালিক পক্ষ ও কর্মী উভয়কে সাহায্য করবে সরকার। এতে উপকৃত হবেন ৮০ লক্ষ শ্রমিক।

তিন কোটি বরিষ্ঠ নাগরিকদের ভাতা দেওয়ার ঘোষণা করা হয়েছে, একই সাথে বিধবাদের জন্যেও ভাতা প্রদান করা হবে।

যে সব কর্মীদের ১৫ কম বেতন তাদের পিএফ দেওয়ার সিধান্ত নিয়েছে সরকার

একইসাথে স্বাস্থ্যকর্মীদের জন্য ৫০ লক্ষ টাকার বীমা ঘোষণাও করেছেন অর্থমন্ত্রী। এছাড়াও লোন নেওয়ার ক্ষেত্রেও বেশকিছু ছাড় ঘোষণা করা হয়েছে।

Back to top button
Close