নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

বিধায়কপদ নিয়ে কী ভাবছেন রায়সাহেব, এই প্রথম খোলসা করলেন তিনি

বাংলা হান্ট ডেস্কঃ দিন কয়েক আগেই বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছিলেন কৃষ্ণনগর উত্তরের বিধায়ক মুকুল রায় (MUKUL ROY)। দীর্ঘ ২০ বছর পর নির্বাচনে দাঁড়িয়ে প্রথমবার জিতেছিলেন তিনি। আর জয়ের মাসখানেক পর তিনি বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দেন। দলত্যাগের পর থেকে বিজেপি মুকুল রায়ের বিধায়ক পদ খারিজ করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। বিশেষ করে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী মুকুল রায়ের বিধায়ক পদ খারিজ করার জন্য কোমর বেঁধে নেমেছেন। আর এই নিয়ে তিনি শুক্রবার বিধানসভার অধ্যক্ষকে চিঠিও দিয়েছেন।

বিজেপির তরফ থেকে ৬৪ পাতার একটি চিঠি জমা করা হয়েছে বিধানসভার অধ্যক্ষ বিমান বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে। যদিও বিমানবাবু এই নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেননি। আর এরই মধ্যে নিজের বিধায়ক পদ নিয়ে প্রথমবার মুখ খুললেন মুকুল রায়। এদিন তিনি নিজের সল্টলেকের বাড়িতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হন। সেখান থেকে তিনি বলেন, ‘আইন অনুযায়ী আমি সিদ্ধান্ত নেব।”

ওনাকে যখন বলা হয় যে, বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী ওনার বিধায়কপদ খারিজ করার জন্য বিধানসভার অধ্যক্ষকে চিঠি পাঠিয়ে আবেদন জানিয়েছেন, তখন মুকুলবাবু বলেন, ‘উনি আবেদন করতেই পারেন। তবে এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার যার আছে, তিনিই সিদ্ধান্ত নেবেন।” মুকুল রায়ের এই মন্তব্যে এটা বোঝাই যাচ্ছে যে, তিনি বিধানসভার সদস্যপদ সহজেই ছাড়ছেন না। তিনি বিধানসভায় বিজেপিকে বুঝে নিতে প্রস্তুত হচ্ছেন।

ওনাকে এটাও বলা হয় যে, শুভেন্দুবাবু ওনার সদস্যপদ খারিজ করার জন্য উঠেপড়ে লেগেছেন। তখন তিনি বলেন, ‘রাজনীতিতে কেউ বেশি আর কেউ কম সক্রিয় থাকে। আমার এই বিষয়ে দল সিদ্ধান্ত নেবে। দল সিদ্ধান্ত নিলে আপনারা জানতেই পারবেন। আমি এই নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেব না।”

Related Articles

Back to top button