নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গভিডিও

নেতাজি সুভাষ চন্দ্র সহ বাংলার সকল মনিষীরাই তৃণমূল, মুখ্যমন্ত্রীর ভাইয়ের ভাইরাল ভিডিও

কলকাতাঃ বাংলার মনিষীরা যেমন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, স্বামী বিবেকানন্দ’রা যে রাজনীতি করতেন, সেটা কারও জানা নেই। তেমনই নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু যে আবার তৃণমূল করতেন এটাও কারও জানা নেই। সবথেকে বড় বিষয় হল নেতাজির আমলে তৃণমূল নামের দলটাই তো ছিল না। নেতাজি কংগ্রেসের হয়ে কলকাতার মেয়র হয়েছিলেন সেটা সবার জানা। এরপর তিনি আবার কংগ্রেস ছেড়ে ফরওয়ার্ড ব্লক দল গঠনও করেছিলেন। কিন্তু তৃণমূল কোথা থেকে এল?

এই প্রশ্নটা করার অনেক মানে রয়েছে। কারণ, সম্প্রতি একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হচ্ছে যেখানে কল্কটা পুরসভা ভোটে তৃণমূলের প্রার্থী কাজরী বন্দ্যোপাধ্যায় যিনি আবার পরিচিত রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভ্রাতৃবধূ হিসেবেও। ওনার প্রচার অভিযানে নেতাজি, বিবাকানন্দ, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর সবাই তৃণমূল করতেন বলে দাবি করেছেন খোদ কাজরীদেবীর স্বামী তথা মুখ্যমন্ত্রীর ভাই কার্তিক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই প্রচার অভিযানের সময় সশরীরে উপস্থিত ছিলেন খোদ কাজরীদেবীও।

ভিডিওটি নিজের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে ট্যুইট করেছেন আসানসোল দক্ষিণের বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল। তিনি ট্যুইট করে লিখেছেন, ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাংলার মানুষের কাছে ক্ষমা চাওয়া উচিত। আপনার ভাই চিৎকার করে বলেছিল “নেতাজি একজন টিএমসি সদস্য”। নেতাজিকে আপনি কোন স্তরে নিয়ে গিয়েছেন?? আর এখন আপনি ট্যাবলোর রাজনীতিতে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন!! পরবর্তী প্রজন্মকে আপনি কি বার্তা দিচ্ছেন??”

বিজেপি বিধায়কের এই ট্যুইট ঘিরে চারিদিকে নিন্দার ঝড় বয়ে যাচ্ছে। ভিডিওতে কার্তিকবাবুর এহেন স্লোগানে মুখ পুড়েছে শাসক দলের। যদিও, এখনও পর্যন্ত কার্তিকবাবু, কাজরীদেবী বা তৃণমূলের পক্ষ থেকে এই নিয়ে কোনও বয়ান দেওয়া হয়নি। তবে, বিজেপির পক্ষ থেকে এই ঘটনার তুমুল নিন্দা করা হচ্ছে এবং স্বাধীনতা সংগ্রামী ও বাংলার মনিষীদের অপমান করারও অভিযোগ তোলা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button