Press "Enter" to skip to content

দেশের মহিলা কর্মচারীদের জন্য সুখবর, শ্রম আইন বদল এনে যুগান্তকারী পদক্ষেপ মোদী সরকারের

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) হিমাচল প্রদেশের রোহতাংয়ে অটল টানেল উদ্বোধন করার পর নিজের ভাষণে নতুন শ্রম আইনের (New Labour Act) কথা উল্লেখ করেন। উনি বলেন, নতুন আইনের পর মহিলারাও পুরুষের মতো বেতন (Equal Salary) পাবেন। একই সাথে তাঁরা পুরুষদের হিসাবে এগিয়ে যাওয়ারও সুযোগ পাবে। জানিয়ে দিই, মোদী সরকার ৪৪ টি শ্রম আইনে বদল করে চারটি শ্রম নীতি বানিয়েছে। এর সাথে সাথে ১২ টি আইন রদ করে পুরনো ৪৪ টি আইনের মধ্যে ৩ টি আইন নতুন শ্রম নীতিতে যুক্ত করেছে।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী নিজের ভাষণে বলেন, আমাদের আত্মনির্ভর ভারতের লক্ষ্যকে হাসিল করতে হলে গত শতাব্দীর নিয়ম এই শতাব্দীকে চালালে হবেনা। এরজন্য আমাদের সরকার শ্রম সংস্কারের কাজ আগামী দিনেও জারি রাখবে। বিরোধীদের আক্রমণ করে উনি বলেন, আমাদের সংস্কার রাজনৈতিক সুবিধার জন্য কাজ করা মানুষদের বিপাকে ফেলে। ওদের বোঝাতে হবে যে, আপনি বিগত শতাব্দীর ধারণা নিয়ে নতুন শতাব্দীতে প্রবেশ করতে পারবেন না।

নতুন শ্রম আইন অনুযায়ী, বেতন সংস্কারে পরিস্কার বলে দেওয়া হয়েছে যে, পুরুষ আর মহিলাদের সমান বেতন দিতে হবে। এর সাথে সাথে বলা হয়েছে রাষ্ট্রীয় নুন্যতম বেতনও নির্ধারণ করতে হবে। কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে গঠিত একটি কাউন্সিল প্রতিবছর নুন্যতম বেতনের সমীক্ষা করবে। ভৌগলিক অবস্থান এবং ব্যক্তির দক্ষতার ভিত্তিতে বেতন নির্ধারণ করা হবে। আরেকদিকে, মজুরি আইন অনুযায়ী কোম্পানি গুলোকে সময়মত কর্মচারীদের বেতন দেওয়া অনিবার্য করা হয়েছে।

ব্যবসায়িক সুবিধা আর স্বাস্থ্য সংহিতা অনুযায়ী, মহিলাদের সমস্ত ক্ষেত্রে কাজ দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। আরেকদিকে, কোম্পানি গুলোকে মহিলা কর্মচারীদের জন্য ক্রেচ এবং ক্যান্টিনের সুবিধা দেওয়া অনিবার্য করা হয়েছে। এছাড়াও কোম্পানির তরফ থেকে ৪৫ বছরের বেশি কর্মচারীদের বছরে একবার বিনামূল্যে হেলথ চেকআপ করানোর সুবিধা দেওয়ার কথা বলা হএয়ছে। মহিলাদের জন্য কাজ সকাল ৬ টা থেকে সন্ধ্যে ৭ টা পর্যন্ত করে দেওয়া হয়েছে। এরপরও যদি মহিলাদের কাজ করানো হয়, তাহলে তাঁদের সুরক্ষার দায়িত্ব কোম্পানিকে বহন করতে হবে। আর ওভারটাইমে দ্বিগুণ টাকা দিতে হবে।