আন্তর্জাতিকনতুন খবর

চাইনিজ শ্রমিকরা আমাদের মারধর করেছে, বাথরুমে আটক করেছিল: অভিযোগ পাক সৈন্যদের

পাকিস্তানে চলা CPEC প্রজেক্টকে নিয়ে নতুন কান্ড সামনে এসেছে। আসলে CPEC এর কাজ চলার সময় পাক সেনাদের মারধর করার অভিযোগ উঠেছে। যেহেতু প্রোজেক্টটি দুই দেশের তাই চীন ও পাকিস্তানের উভয়ের লোকজন CPEC এর সাথে জড়িত। দুই দেশের বড়ো অফিসার, সৈনিকরাও প্রজেক্টের উপর নজর রাখার জন্য উপস্থিত থাকেন।

তবে এখন খবর আসছে যে এই প্রজেক্টের সুরক্ষাপ্রদানকারী পাক সৈনিকদের মারধর করা হয়েছে। এক্ষেত্রে দুই ধরনের অভিযোগ এসেছে। প্রথমত পাক সৈনিকদের চাইনিজ সৈন্যরা মেরেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আবার অন্যদিকে চাইনিজ শ্রমিকদের উপরেও অভিযোগ উঠেছে।

পাক আর্মির দুই সৈন্যকে বেধড়ক মারধর ও টেনে হিঁচড়ে বাথরুমে ঢুকিয়ে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। অভিযোগ এও যে পাক আর্মির বড়ো অফিসাররা এ বিষয়ে মুখে কুলুপ এঁটেছেন। মিডিয়ায় কাছে খবর পৌঁছানোর পর ঘটনাটি সকলের সামনে এসেছে। এখন পাকিস্তানের লোকজন অপরাধীদের শাস্তির দাবি জানিয়েছে।

তবে পাক প্রশাসন এব্যাপারে চীনের সেনা বা শ্রমিকদের উপর কোনো একশন নিতে পারবে না বলে মনে করা হচ্ছে। কারণ পাকিস্তানের উপর চীনের দাপট অত্যন্ত বেশি। CPEC প্রজেক্ট এর জন্য লাভ সবথেকে বেশি চীনের এবং ক্ষতি সবথেকে বেশি পাকিস্তানের হবে। তা সত্ত্বেও ওই প্রজেক্ট নিয়ে চীন পাকিস্তানের প্রতি কঠোর ব্যাবহার করে এবং প্রজেক্টটিকে চীনের দান হিসেবে দেখানোর চেষ্টা করে। ফলস্বরূপ চীনের অফিসার, চীনের সেনা পাকিস্তানকে দমিয়ে রাখে। এই কারণে এর আগেও পাকিস্তানের সেনাদের চীনা ইঞ্জিনিয়ারদের হাতে মার খেতে হয়েছিল।

Back to top button
Close