নতুন খবরভারতবর্ষ

কোথায় বাক স্বাধীনতা! ফেসবুকে মুখ্যমন্ত্রী বিজয়নের বিরুদ্ধে মুখ খোলায়, খোয়াতে হলো চাকরি

কেরলে বাক স্বাধীনতার উপর লাগাম লাগানোর নতুন ঘটনা সামনে এসেছে। কন্নুর ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট লিমিটেডের (KIAL) এর এক স্টাফ মেম্বার কেএল রমেশকে তার ফেসবুক কমেন্টের জন্য চাকরি খোয়াতে হয়েছে। রমেশ ফেবুকের কমেন্ট বক্সে কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনরাই বিজয়নের সমালোচনা করেছিল বলে অভিযোগ রয়েছে।

পদ্মনাভস্বামী মন্দিরের উপর সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তের উপর বলতে গিয়ে রমেশ পিনরাই বিজয়নের সমালোচনা করেছিলেন। যারপর উনাকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়। এই কমেন্টের জন্য KIAL রমেশকে শো কজ এর নোটিসও পাঠিয়েছে।

উল্লেখ্য, কেরলের মুখ্যমন্ত্রী পিনরাই বিজয়ন KIAL এর সভাপতি। রমেশ বলেছেন যে প্রতিশোধ নিতে গিয়ে তাকে চাকরি থেকে বের করে দেওয়া হয়েছে। রমেশ আরো বলেন, “আমি সমিতিকে জানিয়েছি যে আমি একজন হিন্দু। সেই হিসেবে মন্দিরের বিষয়ে মত রাখার অধিকার আমার আছে। আমি KIAL এর সম্পর্কে কোনো মন্তব্য করিনি।”

KIAL এর বিরুদ্ধে মন্তব্য না করেও শুধুমাত্র চাকরি বাঁচানোর জন্য তিনি ক্ষমা চেয়ে নেন। তবে তা সত্ত্বেও কেএল রমেশকে চাকরি থেকে নিষ্কাশন করে দেওয়া হয়। এই ঘটনার পর অনেকে কেরলে বাক স্বাধীনতা আছে কিনা তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

Related Articles

Back to top button