নতুন খবর

বোরখা পরার ফরমান জারি গার্লস হোস্টেলে! বিক্ষোভে নামল ছাত্রীরা

সম্প্রতি বিহারে মুসলিম সম্প্রদায়ের মহিলা ছাত্রীরা শনিবার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে হোস্টেল সুপারিনটেন্ডেন্ট ক্যাম্পাসের ভিতরে বিক্ষোভ শুরু করেছে। মূলত বোরখা পরার নির্দেশ জারি হওয়ার পর তারা এই বিক্ষোভ প্রদর্শন শুরু করে। ছাত্রীরা হোস্টেলের গেটে পাথর ছুড়তে শুরু করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে বিহারের ভাগলপুর জেলার একটি গার্লস হোস্টেলের।

ছাত্রীরা অভিযোগ করেছে, যে সুপারিন্টেন্ডেন্ট হোস্টেল ক্যাম্পাসের ভিতরে তালেবানদের অনুকরণ করে শরিয়া আইন আরোপ করার চেষ্টা করছে।দারাক্ষা আনোয়ার নামে একজন ছাত্রী জানিয়েছে, যখন আমরা ট্রাউজার পরি, তখন সুপারিনটেন্ডেন্ট আমাদের গালাগাল করেন। তিনি আমাদের বাবা -মাকে মিথ্যা কথা বলেন যে আমরা ছেলেদের সঙ্গে নোংরামি করি ।

নাথ নগরের সার্কেল অফিসার, স্মিতা ঝা পুলিশের একটি দল নিয়ে মেয়েদের হোস্টেলে পৌঁছেছেন এবং সমস্ত খুঁটিনাটি জেনে বিষয়টির সমাধান করেছেন। উল্টোদিকে, ছাত্রীদের আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন হোস্টেল সুপারিনটেনডেন্ট। বিষয়টির গুরুত্ব বুঝে জেলা শিক্ষা কর্মকর্তাদের কাছেও বিষয়টি তুলে ধরা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, যুগ পরিবর্তনের সাথে সাথে পর্দার আড়ালে থেকে দুনিয়া দেখার যন্ত্রণা থেকে মুক্তি পেতে চাইছে মুসলিম নারীরা। শরিয়ত আইনের দোহাই দিয়ে দিনের পর দিন তাদের বঞ্চিত করে রাখা হয়েছে বহু অধিকার থেকে‌। ভারতবর্ষে মুসলিম নারীদের ক্ষেত্রে বোরখা বাধ্যতামূলক নয় কিন্তু কোথাও কোথাও ধর্মের গোঁড়ামির পরিচয় দিয়ে মেয়েদের বাধ্য করা হয় বোরখা পরতে। যা মেনে নিতে পারছেন না অনেকেই।

Related Articles

Back to top button