নতুন খবরভারতবর্ষ

পটাকা জ্বালানোয় মীনা দেবী ও তার ছেলের সাথে মারপিট করল রশিদ খান! মৃত্যু মহিলার

উত্তরপ্রদেশের এটা জেলায় পটাকা ফাটানোর নিয়ে চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটিত হয়েছে। আসলে রশিদ নামের ব্যাক্তি এক মা ও তার বাচ্চাদের নির্মমভাবে মারধর করেছে। মহিলাকে নির্মমভাবে মারধর করার কারণে উনাকে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল, যেখানে মহিলার মৃত্যু হয়।

মহিলার ছেলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করিয়েছে। আপাতত অভিযুক্ত পলায়ন করেছে এবং পুলিশ তল্লাশি চালাচ্ছে। মঙ্গলবার দিন মৃত মীনা দেবীর ছেলে নেপাল সিং এই ঘটনার উপর বিস্তারিত জানান। উনি বলেন, রাত ৮.৩০ সময় উনার ছোটো ভাই করণ প্রতিবেশি হেমরাজের ছেলের সাথে পটাকা জ্বালিয়ে আনন্দ করছিল। একই সাথে গ্রামের আরো এক ছেলে ওই স্থানে উপস্থিত ছিল।

সেই সময় নিকটে থাকা রশিদ নিজের দোকানে বসে ছিল। রশিদ পটাকা জ্বালানোয় বিরক্ত হয়ে উঠে এবং তিনজনকে মারধর করে। মীনা দেবী এসে তাদের বাঁচানোর চেষ্টা করলে রশিদ উনাকেও নির্মমভাবে মারধর করে। উন্মাদী রশিদ গলা টিপে মীনা দেবীর স্বাস বন্ধ করে দেন,যার দরুন উনি অজ্ঞান হয়ে পড়েন।

মায়ের এমন অবস্থা দেখে করণ ঘটনাস্থলে কেঁদে ফেলে। খুব শীঘ্রই ঘটনাস্থলে লোকজড়ো হয়ে যায়। লোকজন মীনা দেবীকে প্রাথমিক চিকিৎসাকেন্দ্রে ভর্তি করে, যেখানে উনাকে মৃত ঘোষণা করে দেওয়া হয়।

Related Articles

Back to top button