Press "Enter" to skip to content

নরসিংহানন্দ সরস্বতীর গলা কাটলে ৫১ লক্ষ টাকা পুরস্কারের ঘোষণা করেছিল মহম্মদ দানিশ, গ্রেফতার করল পুলিশ

শেয়ার করুন -

হিন্দু সন্ন্যাসী নরসিংহানন্দ সরস্বতীকে খুন করার জন্য জিহাদি শক্তি উঠেপড়ে লেগেছে। এক ব্যাক্তি ভিডিও বানিয়ে ডাসনা দেবী মন্দিরের সন্ন্যাসীর গলা কাটার হুমকি দিয়েছিল। পুলিশ এখন ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। ভিডিওতে ওই ব্যক্তি বলেছিল যে নরসিংহানন্দ সরস্বতীর গলা কেটে আনবে তাকে ৫১ লক্ষ টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে।

ভিডিও ভাইরাল হওয়ার ১ ঘন্টার মধ্যে পুলিশ ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার হওয়া ব্যাক্তির নাম মহম্মদ দানিশ। সে ভিডিওতে বলেছিল যে নরসিংহানন্দ সরস্বতীকে মারলে সে নিজের জমি, বাড়ি, সম্পত্তি বিক্রি করে হত্যাকারীকে উপহার দেবে। দানিশ এটাও বলেছিল, যদি এর পরেও টাকা কম পড়ে যায় তবে সে নিজেকে বেচে টাকা দেবে।

যুবা হিন্দু বাহিনীর নগর সভাপতি অঙ্কিত শর্মা বলেন, মহম্মদ দানিশ পরিবেশকে উত্তেজিত করার চেষ্টা করেছে। এই কারণে তার বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নেওয়া উচিত। দানিশ তার ভিডিওতে বলেছিল, আমাদের নবীকে নিয়ে এমন কথা বলা হয়েছিল যেগুলো শুনে পুরো বিশ্বের হিন্দু মুসলিম খ্রিস্টান সবাই লজ্জিত অনুভব করেছে।

জানিয়ে দি, নরসিংহানন্দ সরস্বতী ডাসনা দেবী মন্দিরের মুখ্য পুজারী। একই সাথে বিশ্বব্যাপী ইসলামিক কট্টরপন্থীদের জেহাদের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলার জন্য খ্যাত নরসিংহানন্দ সরস্বতী মহারাজ। এর আগে AAP বিধায়ক আমানতুল্লাহ খান নরসিংহানন্দ সরস্বতীর গলা কাটার হুমকি দিয়েছিলেন এবং গ্রেফতারের হুমকি দিয়েছিলেন।