Press "Enter" to skip to content

বড় খবরঃ নির্ভয়া কাণ্ডের দোষীদের প্রাণ ভিক্ষার আবেদন খারিজ

শেয়ার করুন -

নির্ভয়া (Nirbhaya) গণ ধর্ষণ কাণ্ডে দোষী বিনয় শর্মার দয়ার আবেদন খারিজ করার সুপারিশ করল স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এই সুপারিশ রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে করা হয়েছে। আপনাদের জানিয়ে রাখি, এর আগে দিল্লী সরকারও বিনয় শর্মার প্রাণ ভিক্ষার আবেদন খারিজ করার সুপারিশ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে করেছিল। এই আবেদন খারিজ করে বলা হয়েছে যে, ২০১২ সালে নির্ভয়া মামলার জঘন্য অপরাধী বিনয় শর্মার প্রাণ ভিক্ষার আবেদন যেন খারিজ করা হয়। নির্ভয়া মামলার দোষী ২৩ বছর বয়সী বিনয় শর্মা রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণ ভিক্ষার আবেদন করেছে।

দিল্লী সরকারের মন্তব্য অনুযায়ী, জঘন্য অপরাধীদের কোনরকম ভাবেই ক্ষমা করা হবেনা। দোষীকে সাজা দিলেই সমাজে একটি ভালো এবং কঠোর বার্তা যাবে। দোষীরা উপযুক্ত সাজা পেলেই ভবিষ্যতে এইরকম ঘটনা করার কথা আর কেউ ভাববেনা। যদিও এর আগে দিল্লী সরকার নির্ভয়া গণ ধর্ষণ কাণ্ডে আরেক অভিযুক্ত মোহম্মদ আফরোজকে মুক্ত করার পক্ষে কথা বলেছিল দিল্লীর অরবিন্দ কেজরীবাল সরকার।

এমনকি নাবালক আফরোজকে আইনে মুক্ত হওয়ার পর দিল্লী সরকারের তরফ থেকে তাঁকে জীবনের মূল স্রোতে ফিরে আসার জন্য একটি সেলাই ম্যাশিন আর ২০ হাজার টাকা নগদ দেওয়া হয়েছিল দিল্লী সরকারের তরফ থেকে।

এই মামলায় তিহার জেলের মহানির্দেশক সন্দীপ গোয়েল বলেন, নির্ভয়া মামলার এক দোষী বিনয় শর্মা প্রাণ ভিক্ষার আবেদন করেছে। তিহার জেল এই আবেদন দিল্লী সরকারের কাছে পাঠিয়েছে। দিল্লী সরকার সেই ফাইল উপ রাজ্যপালের কাছে পাঠিয়েছে আর সেখান থেকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের কাছে যাবে। এবং সর্বশেষে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক থেকে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে যাবে। রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দই ঠিক করবেন দোষীকে ফাঁসি দেওয়া হবে কিনা।