নতুন খবরভারতবর্ষ

এবার হায়দ্রাবাদের মেয়ের জন্য লড়াই লড়ব বললেন নির্ভয়ার মা

কেজরীবাল সরকার দিল্লীর উপরাজ্যপালের কাছে নির্ভয়া গণধর্ষণ (Nirbhaya Gangrape) মামলায় এক দোষীর দয়ার আবেদন খারিজ করার জন্য সুপারিশ করেছে। এই নিয়ে একটি প্রস্তাব রাজ্যপালের কাছে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে স্বীকৃতি পাওয়ার পর ওই ফাইল রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের কাছে পাঠানো হবে। অন্তিম সিদ্ধান্ত স্বয়ং রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ নেবেন। নির্ভয়ার মা মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবালের এই পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন। উনি বলেন, দিল্লী সরকারের (Kejriwal Government) এই সিদ্ধান্তে আমি নতুন করে আশার আলো দেখতে পারছি। নির্ভয়ার মা এও বলেন যে, এবার হায়দ্রাবাদের মেয়ের জন্য লড়াই লড়ব আমি।

দিল্লী সরকারের সিদ্ধান্তের পর নির্ভয়ার মা বলেন, ‘আমি সবার আগে দিল্লী সরকারের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানাই। আশা করছি যে যার কাছে এই ফাইল আছে তিনি অতি শীঘ্রই পদক্ষেপ নেবেন আর দোষীরা ফাঁসির সাজা পাবে।” নির্ভয়ার মা আদালতের শুনানির উল্লেখ করে বলেন, ‘দুই দিন আগে যখন জজ সাহেব বলেছিলেন যে, এখন ফাঁসি দেওয়া যাবেনা তখন আমি ভেঙে পড়েছিলাম। এবার দিল্লী সরকারের সিদ্ধান্তের পর আমি আবার আশার আলো দেখছি, কিন্তু আমি এখনো আমার লড়াই থামাব না।” আপনাদের জানিয়ে রাখি, দিল্লীর এক আদালত বলেছিল যে, আদালত গণধর্ষণের দোষীদের বিরুদ্ধে আপাতত ডেথ ওয়ারেন্ট জারি করতে পারবেনা। আর এটা শুনে কোর্ট রুমে নির্ভয়ার মা কেঁদে ফেলেন।

দেশের IT হাব হিসেবে খ্যাত হায়দ্রাবাদে হৃদয় বিদারক গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে গেছে চার দিন আগে। অভিযুক্তরা মহিলা ডাক্তারকে ধর্ষণ করার পর তাঁকে জীবন্ত জ্বালিয়ে দেয়। পুলিশ সমস্ত অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে বলে জানিয়েছে। এই মামলায় নির্ভয়ার মা জানিয়েছে, এবার তিনি হায়দ্রাবাদের মেয়ের জন্য লড়াই লড়বেন।

উনি বলেন, ‘আমি হায়দ্রাবাদের ঘটনার পর শোকস্তব্ধ। নির্ভয়ার পর এবার হায়দ্রাবাদের মেয়ের জন্য লড়াই লড়ব আমি। আমি হায়দ্রাবাদ যাওয়ার কথা ভাবছি, নির্ভয়ার মতো হায়দ্রাবাদের ঘটনায় ন্যায় বিচারের জন্য যেন সাত বছর না লাগে। সেখানকার সরকার যত তাড়াতাড়ি সম্ভব তত তাড়াতাড়ি যেন নির্যাতিতাকে ন্যায় পাইয়ে দেয়।”

Related Articles

Back to top button