আন্তর্জাতিকনতুন খবর

ভারত নয়, এবার পাকিস্তানের জনগণই ইমরান খানকে ‘আন্তর্জাতিক ভিখারি” বলে ট্রোল করছে

নয়া দিল্লিঃ এখনও পর্যন্ত শুধুমাত্র ভিনদেশীরা বিশেষ করে ভারতের জনগণ পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে নিয়ে ট্রোল করত। কিন্তু এখন তাঁর নিজের দেশের লোকেরাই তাঁকে আন্তর্জাতিক ভিখারি বলছে। জামায়াত-ই-ইসমালি প্রধান সিরাজুল হক রবিবার ইমরান খানকে আন্তর্জাতিক ভিখারি বলে আখ্যা দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, পাকিস্তান থেকে ইমরান খানের চলে যাওয়াই দেশের সব অর্থনৈতিক সমস্যার সমাধান। পাশাপাশি দেশে নতুন করে নির্বাচনেরও আবেদন জানিয়েছেন তিনি।

আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (IMF) সাথে তার বিতর্কিত চুক্তি এবং সংসদে একটি মিনি-বাজেট পাশের পর ইমরান খান তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েছেন। এদিকে সিরাজুল হক বলেছেন যে, ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার দেশ পরিচালনা করতে ব্যর্থ। দেশে রাজনীতিতে লাভ ক্ষতির কোনো স্থান নেই। ইমরান খানের বিদায়েই সব সমস্যার সমাধান হবে।

পাকিস্তান পিপলস পার্টির প্রেসিডেন্ট বিলাওয়াল ভুট্টো জারদারিও ইমরান খানের সমালোচনা করেছেন। এমনকি ইমরানকে শতাব্দীর সেরা সংকট বলেও অভিহিত করেছেন তিনি। তিনি কটাক্ষ করে বলেছেন যে, নতুন জিনিসে ইমরান খান পুরনো যন্ত্রাংশ ব্যবহার করছেন। তিনি বলেন, এই সরকার সর্বক্ষেত্রে ব্যর্থ হয়েছে।

বলে দিই, পাকিস্তান বর্তমানে চরম অর্থনৈতিক সংকটের সম্মুখীন। দেশের ওপর বৈদেশিক মুদ্রার ঋণের বোঝা বেড়েই চলেছে। অন্যদিকে সরকারি কোষাগারও শূন্য হয়ে পড়েছে। এমতাবস্থায় সরকারকে আর্থিক সাহায্যের জন্য IMF-র ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে। সম্প্রতি ইমরান সরকার দুটি বিল পাস করেছে। এগুলোকে বলা হয় ‘মিনি বাজেট’।

প্রথম বিলটি ৩৬০ বিলিয়ন ডলার মূল্যের আর্থিক ব্যবস্থা বিষয়ে। যারও ফলে অনেক ক্ষেত্রে বিক্রয় কর বাড়বে। দ্বিতীয় বিলের আওতায় স্টেট ব্যাঙ্ক অফ পাকিস্তানকে সম্পূর্ণরূপে সরকারি নিয়ন্ত্রণ থেকে মুক্ত করা হচ্ছে। এই দুটি বিল পাশের শর্ত দিয়েছিল IMF। ইমরান সরকার এই শর্তে রাজি হওয়ার পরই পাকিস্তানের জন্য ঋণ অনুমোদন করা হয়েছে আইএমএফের তরফ থেকে।

Related Articles

Back to top button