নতুন খবরপশ্চিমবঙ্গরাজনীতি

এবার বাম শিবিরে ভাঙন ধরাতে তৎপর হল বিজেপি, রামের শরণে আসতে চলেছেন সিপিএম বিধায়ক

কলকাতাঃ তৃণমূল (All India Trinamool Congress) থেকে নেতা, বিধায়করা তো বিজেপিতে আসার জন্য মুখিয়েই আছেন, আর এবার বামেদের কেল্লাতেও ভাঙন ধরাতে তৎপর হল বিজেপি। ইতিমধ্যে দলের প্রতি ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে দল ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন হলদিয়ার সিপিএম (Cpim) বিধায়ক তাপসী মণ্ডল। তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, কাজ করতে পারছেন না। এমনকি ইঙ্গিতে ইঙ্গিতে এও বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, তিনি বাম ছেড়ে রামের পথে হাঁটতে চাইছেন।

আরেকদিকে, শুভেন্দু অধিকারীর হাত ধরে সিপিএম ছেড়ে তৃণমূলে নাম লিখিয়েছিলেন দীপালি বিশ্বাস। গতকালই শুভেন্দু অধিকারী তৃণমূলের সদস্যতা ছেড়ে দেন। আগামীকাল অমিত শাহের হাত ধরে ওনার বিজেপিতে যোগ দেওয়ার কথা। তাই এবার শুভেন্দুর হাত ধরে মালদহের গাজলের বিধায়ক দীপালি বিশ্বাসও বিজেপিতে যোগ দিতে পারেন। ওনাকে তৃণমূলের অন্দরে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা। যদিও ওনার উপর কড়া নজর রাখছে ভোট কুশলী প্রশান্ত কিশোরের টিম।

প্রসঙ্গত, ২০১৬ এর নির্বাচনে গোটা রাজ্যের তৃণমূলের ঝড় থাকলেও মালদহের বিধানসভার ১২ টি আসনের মধ্যে ১১ টি আসনেই জয়লাভ করেছিল বাম-কংগ্রেস জোট। সেখানে বিরোধী শিবিরে ভাঙন ধরাতে তৎপর হন শুভেন্দু অধিকারী। এরপর ২১ এ জুলাইয়ের মঞ্চে গিয়ে সটান তৃণমূলে যোগ দেন দীপালি বিশ্বাস। এখন যেহেতু শুভেন্দু অধিকারীই আর দলে নেই, সেহেতু ওনারও দল ত্যাগের সম্ভাবনা তুমুল হারে বাড়ছে।

এছাড়াও এবার পদত্যাগ করলেন উত্তর ২৪ পরগনা জেলার দাপুটে তৃণমূল নেতা ফিরোজ কামাল (বাবু মাস্টার)। রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে শুভেন্দুর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার আগে তৃণমূলে যেমন হারে ভাঙন ধরেছে, শুভেন্দুর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর এই ভাঙন কয়েকগুণ বৃদ্ধি পাবে।

আজ উত্তর ২৪ পরগনা জেলার জেলা পরিষদের পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন বাবু মাস্টার। তিনি জেলা পরিষদের শিক্ষা, ক্রীড়া ও তথ্য সংস্কৃতি বিভাগের দায়িত্বে ছিলেন। ওনার পদত্যাগ তৃণমূলের কাছে বড় ধাক্কা বলেও মনে করা হচ্ছে। যদিও তিনি এখনো দল ছাড়েন নি, আর আগামী দিনে তিনি কি করবেন সেটা নিয়েও স্পষ্ট কিছু বলেন নি। জানিয়ে দিই, এর আগে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার আরও এক দাপুটে তৃণমূল নেতা দল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছিলেন।

Related Articles

Back to top button