নতুন খবরভারতবর্ষ

অক্ষয় নাম নিয়ে নার্সের সাথে সহবাস করতো আক্রম খুরেশি! গর্ভবতী হওয়ার পর দিচ্ছিল ইসলাম কবুল করার চাপ

লাভ জিহাদের আরো এক চাঞ্চল্যকর ঘটনা সামনে এসেছে। উত্তরপ্রদেশের বাগপত জেলার আক্রম খুরেশি নামের চিকিৎসকের উপর এক নার্স ধর্ষণের অভিযোগ তুলেছেন। অভিযোগ এও যে,নার্স গর্ভবতী হওয়ার পর তাকে ইসলাম কবুল করানোর জন্য চাপ দেওয়া হয়েছিল। মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী নাম পাল্টে নার্সকে প্রেম জালে ফাঁসিয়ে বহুবার সহবাস করেছিল অভিযুক্ত চিকিৎসক।

বিয়ের কথা উঠতেই আক্রম খুরশি নার্সকে ধৰ্ম পরিবর্তন করার জন্য চাপ দেয়। এখন পরিস্থিতি এমন যে নার্স ৬ মাসের গর্ভবতী। সবথেকে চাঞ্চল্যকর বিষয়, আক্রম নিজের আসল নাম, পরিচয় লুকিয়ে ছিল। আক্রম নিজেকে অক্ষয় হিসেবে পরিচয় দিয়েছিল।

নার্স এও অভিযোগ তুলেছেন যে অভিযুক্ত চিকিৎসক আপত্তিজনক ভিডিও বানিয়েছিল। বিয়ের কথা তুললেই চিকিৎসক ভিডিও ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিত বলেও অভিযোগ উঠেছে। নার্স গর্ভবতী হওয়ার পর আক্রম গর্ভপাত করানোর জন্যেও চাপ দিয়েছিল বলে জানা গেছে।

১৭ নভেম্বর মঙ্গলবার দিন নার্স চিকিৎসকের বিবির সাথে দেখা করেছিল। চিকিৎসকের বিবি নার্সের পেটে লাথি মেরেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এরপর নার্স কোনোরকমে পালিয়ে এসে পলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করে। পুলিশ এই ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করেছে, যদিও মূল অভিযুক্ত এখনও পলাতক।

Related Articles

Back to top button