Press "Enter" to skip to content

প্রভু জগন্নাথের রথযাত্রায় অংশ নিলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান, স্বামীকে নিয়ে টানলেন রথ

শেয়ার করুন -

কলকাতাঃ  কলকাতায় ইস্কনের প্রতীকী রথযাত্রায় রথ টানলেন তৃণমূল (ALL India Trinamool Congress) সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। প্রতি বছরের মতো এই বছরেই এই অনুষ্ঠানে যোগ দেন। গত বছর তীব্র সমালোচনার মুখোমুখি হয়েছিলেন তিনি। প্রসঙ্গত একজন মুসলিম হয়ে কীভাবে তিনি রথযাত্রা এবং দুর্গা পুজোতে অংশ নেন, সেই নিয়ে অনেক সমালোচনা শুনতে হয়েছিল ওনাকে। কিন্তু স্বভাবতই সেসবে কান না দিয়ে এবছরেও রথ যাত্রায় অংশ নেন।

আরেকদিকে টিকটক বন্ধ করার জন্য মোদী সরকারের (Modi Sarkar) তীব্র সমালোচনা তৃণমূল (ALL India Trinamool Congress) সাংসদ নুসরত জাহানের (Nusrat Jahan)। ভারত-চীন উত্তেজনার মধ্যে ভারত সরকার গোপনীয়তা সুরক্ষার কথা বলে চীনকে বড় ঝটকা দিয়েছে। চীনের ৫৯ টি সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপ ভারত থেকে বন্ধ করেছে সরকার। ব্যান করা অ্যাপের মধ্যে ভারতের জনপ্রিয় অ্যাপ টিকটক, স্ন্যাপচ্যাট আর হেলোর মতো নামীদামী অ্যাপ আছে। ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তের যেমন একদিকে প্রশংসা হচ্ছে, তেমন আরেকদিকে তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ তথা বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেত্রী নুসরত জাহান এর বিরোধিতা করেছেন।

সরকারের তরফ থেকে নেওয়া এই পদক্ষেপের বিরোধিতা করে নুসরত জাহান এমন কিছু বললেন, যেটা নিয়ে ওনাকে তীব্র সমালোচনার মুখে পড়তে হল। নুসরত জাহান কলকাতার ইস্কন শাখার একটি বিশেষ অনুষ্ঠানে অংশ নেন। আর সেখানেই তিনি টিকটক ব্যান করা নিয়ে সরকারের সমালোচনা করেন।

নুসরত জাহান ভারত সরকারের এই সিদ্ধান্তকে হটকারি সিদ্ধান্ত বলেছেন। উনি বলেছেন, ‘টিকটক আমার মতো অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়া প্লাটফর্মের মতই। আমার কথা হলে, এরকম হুটহাট সিদ্ধান্ত নিয়ে কি হবে? শুধু অ্যাপ বন্ধ করে কি হবে?” শুধু তাই নয় নুসরত জাহান এই অ্যাপ নিষিদ্ধ করার সাথে নোটবন্দির প্রসঙ্গও টেনে আনেন আর বলেন, সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে অনেকেরই চাকরি যাবে।

উনি বলেন, ‘সরকারের এই সিদ্ধান্তের ফলে অনেকে নিজের চাকরি হারাবে। তাদের সাথে কি হবে? দেশের সুরক্ষার জন্য দেশের জন্য আমি সরকারের পাশে আছি। কিন্তু সেনার জন্য ব্যবহার করা বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট চীন থেকে আসে। ঘুম থেকে উঠে যেমন নোটবন্দি করে দিয়েছিলেন, তেমনই অ্যাপও বন্ধ করে দিলেন। এরফলে কি হবে? এর জবাব কে দেবে?” আপনাদের জানিয়ে দিই, নুসরত জাহান টিকটকে বেশ অ্যাক্টিভ থাকেন। মাঝেসাঝেই তিনি টিকটকে ভিডিও ছাড়েন। আবার অনেকবার ওই ভিডিও ছাড়ার ফলে ওনাকে সমালোচনার মুখে পড়তে হয়।