Press "Enter" to skip to content

পুরো দেশ CAA নিয়ে আলোচনায় ব্যাস্ত! মোদী ও অজিত দোভাল ব্যাস্ত POK এর অপারেশনে।

শেয়ার করুন -

CAA আইন নিয়ে দেশজুড়ে চর্চা চলছে। সাধারণ মানুষ একদিকে এই বিলের সমর্থন জানিয়েছে তো অন্যদিকে কিছুজন বিলের বিরোধিতায় নেমে পড়েছে। সরকারকে চাপে ফেলার জন্য দেশের বেশকিছু জায়গায় সরকারি সম্পত্তিতে আগুন লাগনোর কাজ করছে কট্টরপন্থীরা। তবে পুরো দেশ যখন CAA, NRC নিয়ে আলোচনায় ব্যাস্ত তখন প্রধানমন্ত্রী মোদী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ও NSA অজিত দোভাল ব্যাস্ত মিশন POK তে। অবশ্য বর্তমান সরকারের স্টাইল কিছুটা অন্যরকম। রাম মন্দির মামলা নিয়ে পুরো দেশের চোখ যখন আদালতের রায়ের উপর ছিল প্রধানমন্ত্রী মোদী কারতারপুরে শিখ সমাজের এক ধার্মিক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন। আর এখন দেশে যখন CAA নিয়ে প্রতিবাদ, বিক্ষোভ চলছে তখন অজিত দোভাল (Ajit Doval) কোথায় আছেন কেউ জানেন না। আসলে এটাই সরকারের প্ল্যানিং।

 

এখন একটা বড়ো খবর সামনে আসছে যা আন্তর্জাতিক মহলে বেশ চাঞ্চল্য ফেলে দেবে। কিছু সোর্স দাবি করেছে ভারতীয় সেনা POK এর উপর অপেরাশন শুরু করে দিয়েছে। যদিও আধিকারিভাবে এখন এবিষয়ে কোনো বিবৃতি আসেনি। দাবি করা হয়েছে POK এর ভেতরে থাকা আতঙ্কবাদী লঞ্চপ্যাডগুলি ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়ার কাজ চলছে। POK এর মধ্যে আরো এক সার্জিক্যাল স্ট্রাইক সম্পন্ন হয়েছে বলে দাবি করেছে কিছুজন।

ভারত নিলাম ভ্যালি ও মুজফরবাদে একশন শুরু হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। ভারত LOC তে ব্রহ্মস মিসাইল ও আন্টি ট্যাংক মিসাইল মোতায়েন করেছে তার খবর আগেই সামনে এসেছিল। আর এখন LOC এলাকায় ভারতীয় সেনার মুভমেন্ট তীব্র হয়েছে বলে খবর সামনে এসেছে।

 

পাকিস্তানের এক বুদ্ধিজীবী দাবি করেছেন POK এর উপর ভারত একশন নিয়েছে। পাক বুদ্ধিজীবী বলেছেন পাকিস্তানি সেনার মধ্যে এখন অন্তর্দ্বন্দ্ব চলছে তাই ভারত এই সময়কে বেছে নিয়েছে POK তে অপারেশন করার জন্য। কিছু সূত্র এটাও দাবি করেছে যে ভারত সরকার কূটনৈতিক চীন ও আফগানিস্তানকে নিউট্রাল রাখার কাজ কয়েকমাস আগেই শুরু করছে। প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ আগেই POK দখলের কথা
ঘোষণা করেছেন। যার কাজ সম্ভবত এখন শুরু হয়েছে বলেই অনেকের ধারণা।