Press "Enter" to skip to content

ইসলামিক দেশের সংগঠনে বড় ঝটকা খেলো পাকিস্তান, বিদেশ মন্ত্রীদের বৈঠকে হবেনা কাশ্মীর নিয়ে চর্চা

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ সবসময় কাশ্মীর কাশ্মীর বলে কান্নাকাটি করা পাকিস্তান (Pakistan) আরও একবার সপাটে চর খেলো। উল্লেখ্য, অর্গানাইজেশন অফ ইসলামিক কর্পোরেশন (Organisation of Islamic Cooperation) বিদেশ মন্ত্রীদের বৈঠকে কাশ্মীর ইস্যু যুক্ত থাকবে না। OIC এর এই সিদ্ধান্তের কারণে পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রী শাহ মেহমুদ কুরেশি (Shah Mahmood Qureshi) রেগে লাল হয়ে গেছে, কারণ ওনার অফিস বুধবার বয়ান জারি করে ঘোষণা করে দিয়েছিল যে, শাহ মেহমুদ কুরেশি মুসলিমদের সাথে যুক্ত ইস্যুতে চর্চা করবেন আর সেখানে জম্মু কাশ্মীর ইস্যুও সামিল আছে।

পরে OIC আধিকারিক বয়ান জারি করে, যেখানে কাশ্মীর ইস্যুর কোনও উল্লেখ ছিল না। OIC এর সেক্রেটারি জেনারেল ইউরুফ আল-ওথাইমিনের তরফ থেকে বলা হয়েছে যে বিদেশ মন্ত্রীদের বৈঠকে আতঙ্কবাদের বিরুদ্ধে শান্তি আর উন্নয়নের জন্য একজোট হওয়া। আরও ইস্যু গুলো হল প্যালেস্তাইন, হিংসার বিরুদ্ধে যুদ্ধ, কট্টরতা আর সন্ত্রাসবাদ, ইসলামোফোবিয়া আর ধর্মের অপমান ছাড়া কাউন্সিল মুসলিম সংখ্যালঘু আর যারা সদস্য না সেসব দেশের পরিস্থিতি, আন্তর্জাতিক আদালতে রোহিঙ্গাদের জন্য ফান্ড একত্রিত করার মতো ইস্যুতে চর্চা হবে।

আরেকদিকে, পাকিস্তানের বিদেশ মন্ত্রালয়ের বয়ানে বলা হয়েছিল যে, গত বছর আগস্ট ২০১৯ এ অ্যার্টিকেল ৩৭০ হটানোর পর জম্মু কাশ্মীরে খারাপ মানবাধিকার আর মানবীয় পরিস্থিতি নিয়ে চর্চা করবে। উল্লেখ্য, পাকিস্তান সৌদি আরব আর সংযুক্ত আরব আমিরাত (UAE) এর সাথে কিছুদিন ধরে সম্পর্ক ভালো না। এমন কি সৌদি আরব পাকিস্তানকে দেওয়া ৩ বিলিয়ন ডলারের ধার ফেরত চেয়েছেন। আরেকদিকে, UAE পাকিস্তান সমেত কয়েকটি দেশের নাগরিকদের ভিসা রদ করে দিয়েছে।