Press "Enter" to skip to content

গোটা ভারতের জেলে বন্দি প্রচুর মুসলিম অপরাধী! ওয়াইসি বললেন, এটা অন্যায় হচ্ছে মুসলিমদের সাথে

শেয়ার করুন -

নয়া দিল্লীঃ অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (All India Majlis-e-Ittehadul Muslimeen) এর প্রধান তথা হায়দ্রাবাদের সাংসদ আসাদউদ্দিন ওয়াইসি (Asaduddin Owaisi) জেলে বন্দি মুসলিম অপরাধীদের সংখ্যা নিয়ে একটি ট্যুইট করেন। ওয়াইসি লেখেন, ‘আগে থেকে ব্যাপক হারে মুসলিম পুরুষদের বন্দি বানিয়ে রাখা হয়েছিল, কিন্তু এখন তাঁদের সংখ্যা আরও বেড়ে গেছে। আইনের নজরে এরা নির্দোষ কিন্তু তাঁরা বছর বছর ধরে জেলে বন্দি আছে। এটা প্রণালীগত অন্যায়ের আরও একটি উদাহরণ, আর এই অন্যায়ের শিকার আমরা।”

ওয়াইসি একটি মিডিয়া রিপোর্ট শেয়ার করে এই কথা বলেন। ওই মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, রাষ্ট্রীয় অপরাধ রেকর্ড ব্যুরো (NCRB) দেশের জেলে বন্দি অপরাধীদের নিয়ে একটি পরিসংখ্যান জারি করা হয়েছিল। ওই পরিসংখ্যানে জানা যায় যে, জেলে বন্দি মুসলিম, দলিত আর আদিবাসীদের সংখ্যা দেশে তাঁদের জনসংখ্যার অনুপাতে ভিন্ন। আর অন্য পিছিয়ে পরা (OBC) এবং উচ্চ জাতির সাথে যুক্ত মানুষদের মামলায় এই সংখ্যা অন্যরকম।

মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, ২০১৯ এর পরিসংখ্যান দেখে বোঝা যায় যে, মুসলিম সম্প্রদায় ভুক্ত জেলে বন্দি কয়েদিরা দোষীর বদলে বিচারাধীন অধিক। ২০১৯ সালের শেষের দিকে দেশজুড়ে জেলে কয়েদ সমস্ত দোষীদের মধ্যে ২১.৭ শতাংশ দলিত। বিচারাধীন কয়দিদের মধ্যে পিছিয়ে পরা জাতীর মানুষের সংখ্যা ২১ শতাংশ। ১৪.২ শতাংশ জনসংখ্যা বিশিষ্ট মুসলিম সম্প্রদায়ের ১৬.৬ শতাংশ মানুষ দোষী আর তাঁদের মধ্যে ১৮.৭ শতাংশ কয়দিদের মামলা বিচারাধীন।

বলাই বাহুল্য অয়াসাদউদ্দিন ওয়াইসি এই পরিসংখ্যান দেখিয়ে কেন্দ্র সরকারের উপর আক্রমণ করতে চেয়েছেন। উনি এই পোস্টের মাধ্যমে বোঝাতে চেয়েছেন যে কেন্দ্র সরকার মুসলিমদের বিনা কারণে জেলে বন্দি রাখতে চাইছে।