আন্তর্জাতিকনতুন খবর

পাকিস্তান সেনা ও চাইনিজ সেনাদের মধ্যে তুমুল মারামারি! পাক সৈনিকদের হাত,পা ভেঙে দিল চাইনিজরা

আন্তর্জাতিক মিডিয়া ও পাকিস্তানের মিডিয়া বার বার এটা দেখানোর চেষ্টায় থাকে যে চীন-পাকিস্তানের বন্ধুত্ব মহান। পাকিস্তান দাবি করে যে তাদের সাথে চীনের বন্ধুত্ব হিমালয়ের থেকেও উঁচু এবং সমুদ্রের থেকেও গভীর। তবে আসল সত্য এই যে চীন নিজের ব্যাবসার জন্য পাকিস্তানকে ব্যাবহার করে এবং পাকিস্তানিদের অত্যন্ত নিচু চোখে দেখে।

চীনের বড়ো বড়ো কর্মকর্তারাও পাকিস্তানের নেতাদের ছোটো চোখে দেখে। আর এর প্রমান আজ হাতেনাতে পাওয়া গেছে। যে খবর কিছু মিডিয়া ধামাচাপা দিতে উঠেপড়ে লেগেছে। আসলে চীনকে নিজের বড়ো বন্ধু বলা পাকিস্তানের ভেতরে এসে পাক সেনাদের মারধর করেছে চাইনিজ সেনারা।

পাকিস্তানের করাচিতে এই ঘটনাটি ঘটেছে এবং অনেক পাক সেনা অজ্ঞান হওয়ার খবর এসেছে। CPEC প্রজেক্টকে নিয়ে পাক সেনাদের সাথে চীনের সেনাদের দ্বন্দ লেগেছিল এবং ধীরে ধীরে তা হাতাহাতির দিকে এগিয়ে যায়। পরিস্থিতি এমন হয় যে চীনের সেনারা পাকিস্তানের সেনাদের মারধর শুরু করে এবং হাত পা ভেঙে দেয়।

CPEC প্রজেক্ট এর জন্য লাভ সবথেকে বেশি চীনের এবং ক্ষতি সবথেকে বেশি পাকিস্তানের হবে। তা সত্ত্বেও ওই প্রজেক্ট নিয়ে চীন পাকিস্তানের প্রতি অত্যন্ত কঠোর ব্যাবহার করে এবং প্রজেক্টটিকে চীনের দান হিসেবে দেখানোর চেষ্টা করে। ফলস্বরূপ চীনের অফিসার, চীনের সেনা পাকিস্তানকে দমিয়ে রাখে। এই কারণে এর আগেও পাকিস্তানের সেনাদের চীনা ইঞ্জিনিয়ারদের হাতে মার খেতে হয়েছিল।

অভিযোগ উঠেছে, যখন চীনের সেনারা পাকিস্তানের সেনাদের মারধর করছিল তখন পাকিস্তান সেনার বড়ো বড়ো অফিসাররা চুপ করে দেখছিলেন। কারোর সাহস হয়নি চীনের সেনার উপর পাল্টা আক্রমন করার বা আক্রমণের নির্দেশ দেওয়ার। পাক সেনার কমান্ডিং অফিসার ইমরান কাসিম সব দেখে শুনেও পাক সৈনিকদের চাইনিজদের কাছে মার খাইয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

Back to top button
Close