আন্তর্জাতিকনতুন খবর

বড়লোক হতে বিশাল ফন্দি পাকিস্তানের, ৭৫ লক্ষ থেকে ২ কোটি টাকায় বিক্রি করবে নাগরিকতা

নয়া দিল্লিঃ পাকিস্তানের তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী শুক্রবার ঘোষণা করেছেন যে সরকার বিদেশী নাগরিকদের জন্য স্থায়ী আবাসিক প্রকল্পের অনুমতি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এটি রিয়েল এস্টেট খাতে বিনিয়োগের সাথে যুক্ত হয়েছে বলে জানান তিনি। পাকিস্তানের প্রথম জাতীয় নিরাপত্তা নীতি অনুযায়ী ফাওয়াদ বলেছেন যে, পাকিস্তান ভূ-অর্থনীতিকে তার জাতীয় নিরাপত্তা মতবাদের মূল হিসেবে ঘোষণা করেছে। এ কারণেই নতুন নীতিতে বিদেশিদের বিনিয়োগের বিনিময়ে স্থায়ী বাসিন্দার মর্যাদা পাওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

পাকিস্তানের নিউজ ওয়েবসাইট ট্রিবিউন জানিয়েছে যে, তুরস্কের পথে চলে পাকিস্তানের তেহরিক-ই-ইনসাফ (পিটিআই)-র নেতৃত্বাধীন সরকার বিদেশি নাগরিকদের জন্য স্থায়ী বাসস্থান প্রকল্পের সুবিধা চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর জন্য আবেদনকারীদের রিয়েল এস্টেটে ৭৪ লক্ষ টাকা থেকে ২ কোটি টাকা পর্যন্ত বিনিয়োগ করতে হবে৷ এর পেছনে পাকিস্তান সরকারের প্রধান উদ্দেশ্য ব্যাখ্যা করেছেন একজন বিশিষ্ট ফেডারেল মন্ত্রী।

রিপোর্ট অনুযায়ী, মন্ত্রী বলেছেন যে বিদেশীদের জন্য পিআর স্কিম শুরু করার অন্যতম উদ্দেশ্য হল ধনী আফগানদের আকৃষ্ট করা। গত বছরের আগস্টে তালিবান আফগানিস্তানের দখল নেওয়ার পর থেকে আফগানরা তুরস্ক, মালয়েশিয়া এবং অন্যান্য দেশে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছে। মন্ত্রী জানান, পাকিস্তান সরকার শুধুমাত্র এই ধরনের লোকদের আকৃষ্ট করার জন্য এই প্রকল্প চালু করেছে। এছাড়াও, এই প্রকল্পের উদ্দেশ্য হল কানাডা এবং মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসকারী শিখদের লক্ষ্য করা, যারা ধর্মীয় স্থানগুলি বিশেষ করে করতারপুর করিডোরে বিনিয়োগ করতে ইচ্ছুক।

মন্ত্রী জানিয়েছেন যে, প্রকল্পের আরেকটি উদ্দেশ্য হল সেসব চীনা নাগরিকদের আকৃষ্ট করা যারা পাকিস্তানে শিল্প স্থাপন করতে চায় বা স্থায়ীভাবে বসবাস করতে চায়। তিনি বলেন, এটি একটি ঐতিহাসিক পদক্ষেপ। পাকিস্তানের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো বিদেশি নাগরিকদের রিয়েল এস্টেটে বিনিয়োগের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। বিদেশি নাগরিকদের সম্পত্তি কেনার সুবিধার্থে মন্ত্রিসভা মন্ত্রণালয় ও কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে একটি পরিকল্পনা তৈরি করতে বলেছে।

Related Articles

Back to top button