খেলানতুন খবরভারতবর্ষ

দুই ভারতীয় খেলোয়াড়ের আতঙ্কে খেলার আগেই আত্মসমর্পণ পাক কোচের

কলকাতাঃ টিম ইন্ডিয়া (Indian National Cricket Team) নিজের দুটি ওয়ার্মআপ ম্যাচেই জয়ী হয়েছে, যার কারণে ভারতের মনোবল শিখরে রয়েছে। এবার ২৪ অক্টোবর ভারতের (India) মহা মোকাবিলা পাকিস্তানের (Pakistan) সঙ্গে হতে চলেছে, সবার নজর এই হাইভোল্টেজ ম্যাচের দিকেই টিকে রয়েছে। দুই দেশের দর্শকের পাশাপাশি আপামর ক্রিকেট প্রেমী এই ম্যাচের জন্য চরম উৎসাহিত। অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন দিজ্ঞজ ক্রিকেটার তথা পাকিস্তানের ব্যাটিং কোচ ম্যাথু হেডেন (Matthew Hayden) ভারতের দুজন ব্যাটারকে পাকিস্তানের জন্য চরম বিপদ বলে জানিয়েছেন।

ম্যাথু হেডেন বলেছেন, ‘আমি ভারতীয় ক্রিকেটারদের খুব কাছ থেকে দেখেছি। আমি কেএল রাহুলকে আরও উন্নত হতে দেখেছি। এটা পাকিস্তানের জন্য বড় বিপদ হতে পারে। আমি একজন সাধারণ প্লেয়ার হিসেবে রাহুলকে এগিয়ে যেতে দেখেছি। সে বহু সংগ্রাম করে টি২০ ফর্মাটে নিজের নাম প্রমাণ করতে পেরেছে। আমি ঋষভ পন্থকেও দেখেছি, তাঁর আক্রমনাত্বক মনোভাব বোলারদের মনোবল ধ্বস্ত করার জন্য যথেষ্ট। এবার যেহেতু ওঁরা দুজনেই সুযোগ পেয়েছে, সেহেতু তাঁরা নিজেদের প্রমাণ করবে।”

উল্লেখ্য, ভারতের দুটি ওয়ার্মআপ ম্যাচ দুটি বড়বড় দলের সঙ্গে পড়েছিল। প্রথমটি ইংল্যান্ড আর দ্বিতীয়টি অস্ট্রেলিয়া। আর দুটি ম্যাচেই ভারত দুই প্রতিদ্বন্দ্বীকে হেলায় হারিয়ে দিয়েছে। সবথেকে বড় বিষয় হল, দুই টিমকে হারানোর পিছনে ভারতীয় ব্যাটারদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা ছিল। কেএল রাহুল, ঋষভ পন্থ, সূর্যকুমার যাদবের মতো তরুণ খেলোয়াড়রা তাঁদের দক্ষতা প্রমাণ করেছেন।

অন্যদিকে বিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা অশ্বিনরাও নিজেদের দক্ষতা প্রমাণ করে বিপক্ষ দলে আতঙ্কের সৃষ্টি করেছে। ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা এবার ভারতের এই দলের উপরে বড় বাজি ধরেছে। অনেকের মতেই ভারতীয় দল এবার সম্পূর্ণ ভাবে ব্যালেন্সড। অন্যদিকে, পাকিস্তান তাঁদের দুটি ওয়ার্মআপ ম্যাচের মধ্যে সাউথ আফ্রিকার সঙ্গে হারের মুখে পড়েছে। পাকিস্তানের সবথেকে বড় হাতিয়ার হল তাঁদের বোলিং, আর সেখানেই তাঁরা হার স্বীকার করেছে। এই কারণে বিশ্বকাপে বিরাট বাহিনীর থেকে সাবধান থাকতে হবে বাবর আজমদের।

Related Articles

Back to top button