আন্তর্জাতিকনতুন খবর

গৃহযুদ্ধের পরিস্থিতি পাকিস্তানে, ইসলামাবাদ ঘেরাও জঙ্গি সমর্থকদের, পুলিশের সঙ্গে চলছে সংঘর্ষ

নয়া দিল্লিঃ পাকিস্তানের (Pakistan) পাঞ্জাব প্রান্তে কট্টরপন্থী ইসলামিক সংগঠন তেহরিক-ই-লব্যাক পাকিস্তান (TLP)-র সমর্থক আর পুলিশের মধ্যে হিংসাত্মক সংঘর্ষ চলছে। TLP আর ইমরান (Imran Khan) সরকারের মধ্যে বৈঠকে কোনও সমাধান সূত্র না বের হওয়ার পর এই হিংসা আরও বড় আকার ধারণ করে। TLP নিজেদের প্রধান সাদ রিজভির মুক্তি আর ফ্রান্সের রাজদূতদের দেশ থেকে বের করার দাবিতে অনড় রয়েছে।

TLP নিজেদের দাবি পূরণের জন্য রবিবার সরকারকে দু’দিনের সময় দিয়েছিল। পাশাপাশি তাঁরা এও হুঁশিয়ারি দেয় যে, তাঁদের দাবি না মেনে নেওয়া হলে পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদ ঘেরাও করা হবে। এরপর বুধবার TLP ইসলামাবাদের দিকে কুচ করে, আর এরপর বহু জায়গায় TLP সমর্থন এবং পুলিশের মধ্যে হিংসাত্মক সংঘর্ষ হয়।

পাকিস্তানের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ বৃহস্পতিবার বলেছিলেন, সরকার TLP-র সঙ্গে কথাবার্তা চালাচ্ছে। উনি এও বলেছিলেন যে, TLP-র প্রধান সাদ রিজভির সঙ্গে ফোনে কথা হয়েছিল, কিন্তু সমস্যার সমাধান হয়নি। উনি বলেন, ‘TLP-র সঙ্গে আমাদের যেই চুক্তি হয়েছিল, আমরা তাতে কায়েম রয়েছি। কিন্তু TLP আমাদের কথা শুনছে না আর চুক্তিমত কাজও করছে না।”

সরকার জানিয়েছে যে তাঁরা TLP-র বেশীরভাগ দাবি মানার জন্য প্রস্তুত এমনকি রিজভিকে মুক্ত করার জন্যও প্রস্তুত। তবে তাঁরা ফ্রান্সের রাজদূতকে দেশ থেকে বের করার জন্য কোনওমতেই রাজি নয়। জানা গিয়েছে যে, ইসলামাবাদ থেকে TLP-র উগ্র সমর্থকদের বের করতে ইমরান সরকার রাজধানীতে পাক রেঞ্জার্সদের নামিয়েছে। বলে দিই, পাক রেঞ্জার্সদের সীমান্তে পাহারা দেওয়ার কাজে ব্যবহার করা হয়।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ রশিদ জানান, ‘TLP-র সমর্থকরা যদি ইসলামাবাদ থেকে না বের হয়, তাহলে তাঁদের পরিণাম ভুগতে হবে।” উনি বলেন, আগামী দিনেও আমরা কথাবার্তা চালিয়ে যাওয়ার জন্য প্রস্তুত। সরকার হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, TLP-র সমর্থকরা যদি শান্ত না হয়, তাহলে আগামী দিনে তাঁদের সঙ্গে সন্ত্রাসবাদীদের মতো আচরণ করা হবে।

Related Articles

Back to top button